অত্যাচারী বউ পর্ব-০৮ (শেষ পর্ব )

0
1667

অত্যাচারী বউ
লেখকঃ আবু সাঈদ সরকার
শেষ পর্ব

মায়াঃ বুকের ভেতরটা ভয়ে ধড়ফড় করছে ওনি এখনি তো ঘোমটাটা তুলবেন তখন যদি আমাকে দেখতে পায় তখন ওনার রিয়াকশন টা কেমন হবে সেটা ভাবতে তো ভয় লাগতেছে???


সাঈদঃ রুমে ডুকা মাএই দরজাটা বন্ধ করে দিতেই মাথায় শয়তানি বুদ্ধি গুলো ঘুর পাক খাচ্ছে…

তো এখন ফিলিংশটা কেমন??

মায়াঃ এদিকে আমার ভয়ে বুকটা ধড়ফড় করছে ভয়ে ওনি আবার জিজ্ঞেস করছে ফিলিংসটা কেমন ?

সাঈদঃ কী হলো কিছু বলছো না কেনো??

মায়াঃ কথা বললেই তো ধরা পড়ে যাবো এখন কী হবে এভাবে বুকের ভেতরটা ধড়ফড় করলে আমি হার্ট অ্যাটাক করে মরেই যাবো…

সাঈদঃ বিছানায় বসে মায়ার ঘোমটাটা তুলতেই তুমি……. ( জেনেও না জানার ভান করে ??)

মায়াঃ এবার সিরিয়াস হার্ট অ্যাটাক হবে ??

সাঈদঃ ও কোথায় আর তুমি তার কাপড় পড়ে আছো কেনো কোথায় লুকায় রাখছো ??

মায়াঃ????

ভয়ে মুখ থেকে কিছু বেড়াচ্ছোই না…


সাঈদঃ বাসর ঘরে আমাকে থাপ্পড় মারছিলো সেটার প্রতিশোধ টা তো নিবোই আমিও উঠিয়ে দিলাম গালে একটা থাপ্পড় ✋✋


মায়াঃ আপনি আমাকে মারতে পারলেন…

সাঈদঃ ঢং আমাকে মারছিলো সেটা মনে নেই এখন বলছে আমাকে মারতে পারলেন ( মনে মনে )

মায়াঃ চলে যাচ্ছি আপনার সঙ্গে থাকতেই হবে ( রাগ করে? )

সাঈদঃ যাও কে মানা করছে.. দাড়াও ওকে ফোন দিয় এখনি চলে আসবে…


মায়াঃ বিছানা থেকে উঠে চলেই যাচ্ছিলাম তখনি ওনার কথা গুলো শুনে থেমে গেলাম মেয়েটা যদি সত্যি সত্যি চলে আসে তখন কী হবে…


সাঈদঃ কী রে গেলো না কেনো ?

মায়াঃ আচ্ছা যা হয়েছে সেটা ভুলে গিয়ে নতুন করে সম্পর্কটা গড়া যায় না


সাঈদঃ কেনো আর কেই বা তুমি তো অন্য কাউকে বিয়ে করছি….



মায়াঃ না মানে আপনার গালফ্রেন্ড ওইদিন আসে নি তাই আমি তার কাপড় গুলো পড়ে আপনার সাথে বিয়ে করছি??


সাঈদঃ কী ???

এত বড় ধোকা ???

মায়াঃ আসলে আমি ইচ্ছে করে এসব করি নি?

সাঈদঃ তাহলে কী হ্যা তুমি জানো না তোমার সঙ্গে আমার মিলে না তবুও কেনো আমাক বিয়ে করলে…


মায়াঃ না মানে আপনি যেভাবে বলবেন আমি সেইভাবে চলবো ?? তবুও আমাকে আর কষ্ট দিয়েন না?


সাঈদঃ ???? এবার লাইনে আসছে…


আমি তো এখন আগের মতো নেই…


মায়াঃ আগের মতো নেই বলতে ?

সাঈদঃ আগে যেমন আন রোমান্টিক ছিলাম কিন্তু বর্তমানে আমি বটেও তেমন নেই…


মায়াঃ তাহলে কেমন হয়ে গেছেন…

সাঈদঃ সেটা বলে বুঝাতে পারবো না করেই দেখাই….


সাঈদঃ হাতটা ধরে এক টান দিয়ে বুকে টেনে নিয়ে..

মায়াঃ কী করছেন ?

সাঈদঃ কোন কথা না বলতে দিয়ে দুজনের ঠোঁট এক করে দিলাম…

মায়াঃ কিছু খন পর দমটা বন্ধ হয়ে আসছিলো তখন জোর করে নিজেকে ছারিয়ে নিয়ে..

আরেকটু হলে তো মরেই যেতাম…


সাঈদঃ মরে তো আর যাওনি…

মায়াঃ আপনি কী আমাকে মেরে ফেলতে চাচ্ছেন…

সাঈদঃ হয়তো বা…

মায়াঃ এখনিই এসব দিনের বেলা…

সাঈদঃ হুম রাত পযন্ত অপেক্ষা করার মতো সময় নেই…

মায়াঃ ???

সাঈদঃ ?????..

তার পর আবারো দুজনের ঠোঁট এক করে দিলাম ( লিপ কিস করতে কিন্তু সেই মজা.. বিশ্বাস না হলে ট্রাই করে দেখতে পারেন??)

সাঈদঃ তার পর যা হলো.. সেটা হতিহাস…

————–সমাপ্ত————-
কালকে নতুন গল্প দিবো গল্পের নাম লাভলি ওয়াইফ