টর্চার part-1

0
4024

#টর্চার
#Apis_Indica
#part-1

বাম হাত ধড়ে বসে আছে সাফুরা।।
আর চিৎকার করে কান্না করতেসে ব্যথায়।।
কিছুখন আগে তার হাতে সুইচ সুতা দিয়ে খুব সুন্দর করে খোদাই করে আয়মান নামটি লিখা হয়েছে।।

আর এ কাজটি করেছে আয়মান তার নিজ হাতে।।
কিছুখন আগে বাসায় যাওয়ার সময় হুট করে একটি ব্লেক কালার গাড়ি এসে তার সামনে দাড়ায় আর হুট করে গাড়ি থেকে কিছু কালো কাপড় পরিহিত লোক বেড় হয়ে তাকে টেনে নিয়ে যায়।।
তারপর কিছু মনে নেই সাফুরার।।
-হাতের ব্যথা সহ্য করতে না পেড়ে এক পর্যায় জ্ঞান হাড়ায় সাফুরা।
– আয়মান কিছুখন আগে বাহিড়ে গেসিলো এসে দেখে সাফুরা মাটিতে পড়ে আছে।।
হাত থেকে এখনো রক্ত পড়তেসে তার।।
-আয়মান সাফুরাকে কোলে তুলে নেয়।। আর বিছানায় শুয়ে দেয়।।
তারপর ড্রয়ার থেকে মেডিসিন নিয়ে হাতে লাগিয়ে দিল।।
-আয়মান সাফুরার দিকে এক ধেয়ানে তাকিয়ে আছে।।
-কেন এমন কাজ করো জান যেন আমার রাগতে হয়।।তখন যদি আমাকে অধিকারের কথা না বলতে তাহলে আজ সব ঠিক থাকতো(আয়মান)
-কিছুখন পর সাফুরার জ্ঞান ফিড়ে।।
তাকিয়ে আয়মানকে দেখে ভয় পেয়ে যায়।।
তারপর হাতের দিকে চোখ যেতেই আবার কান্না আসতেসে।।আয়মানকে ঘুমে দেখে বাচ্চাদের মতো লাগতে আর কিছুখন আগের আয়মানের সাথে এ আয়মানের কোনো মিল নেই।।আমাকে এখান থেকে পালাতেই হবে।।
-তারপর আস্তে আস্তে যেই খাট থেকে উঠে নিচে নেমে যেতেই এক পা বাড়ালাম তখনি কিছু একটার সাথে টান অনুভব করলাম।।
তাকিয়ে দেখি আয়মান আমার ওরনার সাথে তার হাত পেচিয়ে ধড়ে রাখসে।(সাফুরা)
-ঘুমিয়ে ছিলাম হটাৎ হাতে টান পড়লো তাকিয়ে দেখি সাফুরা পালতে চাইছে তাই তাড়াতাড়ি করে উঠে ওকে টেনে খাটে ফেলে দিলাম।।(আয়মান)
-যেই ওড়নাটা হালকা টান দিয়ে নিতে চাইলাম ওমনি আয়মান জেগে যায় আর আমাকে টেনে খাটে ফেলে দেয়।।যে উঠতে নিবো ওই আমাকে বিখানায় চেপে ধরে।।
-আমি ওকে বিছানায় চেপে ধরে বলতে থাকি
আমার থেকে পালাতে চাইছো এতো সহজ না জান দাঁতে দাঁত চেপে।।তুমি যদি চাউ এর থেকে খারাপ কিছু করি তো যা ইচ্ছে করো আমার জন্য অনেক ভালো।।
এতো নড়ছো কেন হুম এখন একদম সুন্দর করে ভালো বাবুদের মতো শুয়ে পড়ো কেমন (আয়মান)
-আমি আয়মানের কথা শুনে চুপ হয়ে গেলাম আয়মান আমার উপর থেকে উঠে গেল। আর আমাকে শুতে বলল।।
আমি আর কিছু না বলে তার কথা মতো শুয়ে পড়লাম।।
আয়মান আমার পাশে শুয়ে পড়লো আমাকে জড়িয়ে ধরে।।(সাফুরা)
-আমি ওর পাশে শুয়ে ওকে জড়িয়ে ধড়লাম ওই আর কিছু বলোনা।।(আয়মান)
-আমি চোখ বুঝে শুয়ে পড়লাম।(সাফুড়া)


??⚫(past)
-এইটা দেখেছিস এইটা হচ্ছে পেয়াজ,বল এটা কি?(আজমিন সাওার)
– হুুুুহহহহ পেয়াজ??(সাফুরা)
-এইটা কি বল? হাতে ঢেরস নিয়ে(আজমিন সাওার)
-কাঁচামরিচ। আহহহ মা।। মারো কেন।।(সাফুরা)
-মারবো নাতো কি করবো পূজো করবো তোর।এত বড় মেয়ে হয়ে এখনো সবজির নাম জানে না হাহ। এ আবার অনার্সে পরে।।(আজমিন সাওার)
-জানিতো মা কিন্তু মাথা চুলকাতে চুলকাতে মাঝে মাঝে ভুলে যাই এ আর কি।।
তা মা এবার আমি যাই বলে ৩২ টা দাঁত বের করে হসে দিল।(সাফুরা)
-এই যে খুন্তি হাতে নিয়ে এটা দেখেছিস ? এখনি গরম করে গায় লাগিয়ে দিবো বেয়াদব কোথাকার।।(আজমিন)
-মা তুমি এমন কেন।।।?আমি যখন চলে যাবো ঢাকা তখন আর আসবো না বলে দিলাম হু।।(সাফুরা)
.
.
চলবে,,