বৃষ্টিতে ভেজা সেই রাত পর্ব-২০

0
1047

বৃষ্টিতে ভেজা সেই রাত
লেখকঃ আবু সাঈদ সরকার
পর্বঃ ২০

ভয়ংকর স্বপ্ন টা দেখে পুরো শরীরটা ঘেমে ভিজে গেছে তখন প্রায় রাত ২ টার কাছাকাছি…

আদ্রিতাঃ গভীর রাতে কারো চিৎকারের আওয়াজ শুনে ঘুমটা ভেঙ্গে গেলো এত রাতে কে এমন ভাবে চিৎকার করলো তখনি যা দেখলাম তা বিশ্বাসি হচ্ছিলো না..

সাঈদঃ আদ্রিতা তোমার কিছু হয় নি বলেই জরিয়ে ধরতে…

আদ্রিতাঃ আপনার কথা বলার শক্তি টা ফিরে আসছে আপনি আবার আগের মতো কথা বলতে পারতেছেন…

সাঈদঃ সত্যি আমি কথা বলতে পারতেছি..

আদ্রিতাঃ হ্যা সত্যি সত্যি আপনি কথা বলতে পারতেছেন কিন্তু আপনার শরীরটা এতটা ঘেমে ভিজে গেছে কেনো..

সাঈদঃ ভয়ানক স্বপ্নটার কথা আদ্রিতাকে বললাম না…
ও কিছু না একটু গরম লেগেছিলো তাই মনে হয় ঘেমে গেছে..

আদ্রিতাঃ কী গরম লেগেছিলো রুমের মধ্যে এসি চলতেছে পুরো রুমটা ঠান্ডা আর আপনি বলতেছেন গরম লেগেছিলো..

সাঈদঃ জানতাম বিশ্বাস করতে পারবে..

আদ্রিতাঃ আচ্ছা ঠিক আছে এ বিষয়ে আর কথা বলে লাভ নেই আপনি কথা বলতে পারতেছেন তাই আমি কাল এই আনন্দ উপলক্ষে গরিব আসহায় মানুষের মধ্যে খাবার বিতরণ করবো..

সাঈদঃ হুম যত টাকা লাগে আলমারি থেকে নিয়ে নিও..

আদ্রিতাঃ হুম..

সাঈদঃ এখন তাহলে শুয়ে পড়ি..

আদ্রিতাঃ না না একদমি না এত দিন আপনার সঙ্গে একটুও কথা বলতে পারি নি কতটা যা কষ্ট পেয়েছি তা বলে বুঝাতে পারবো না আর আজকে যখন কথা বলতে পারতেছেন তাই আজ পুরোটা রাত গল্প করে কাটিয়ে দিবো চলুন ছাদে যাই…


সাঈদঃ এত রাতে..

আদ্রিতাঃ হুম..

সাঈদঃ যদি বৃষ্টি পড়তে শুরু করে তখন

আদ্রিতাঃ হবে না বৃষ্টি রাতে খোলা আকাশে চাঁদের আলোয় পুরো পৃথিবীটা আলোকিত হয়ে গেছে আর আপনি বলছেন বৃষ্টি হবে..


( আমার গল্পে একটু বেশিই বৃষ্টি হয় বলা তো যায় না কখন হুট করে বৃষ্টি পড়তে শুরু করবে. )

সাঈদঃ হুম চলো..
ছাদে এসে..

আদ্রিতাঃ দেখেছেন চাঁদ টা কত সুন্দর..

সাঈদঃ কে বললো চাদটা সুন্দর চাঁদের থেকে তুমি বেশি সুন্দর..

আদ্রিতাঃ বললেই হলো..

সাঈদঃ হুম আর এই মিষ্টি চাঁদের আলোয় আমার লক্ষি বউটাকে আরো বেশি সুন্দর লাগতেছে..

আদ্রিতাঃ

সাঈদঃ

আদ্রিতাঃ আচ্ছা আমি যখন বুড়ি হয়ে যাবো তখনো কী এতটাই ভালোবাসবেন আমায়..

সাঈদঃ হুম এর থেকেও বেশি বলেই গালে একটা চুমু দিলাম উম্মাহহহ

আদ্রিতাঃ আপনিও না পারেন বটে..

সাঈদঃ হুম পারতে তো হবেই চলো আজকে বাসর রাত পালন করি..

আদ্রিতাঃ বাসর রাত মানে আমাদের কী আজ বিয়ে হয়েছে..

সাঈদঃ নতুন বিয়ে হলেই কী বাসর রাত করা যায় এমনি করা যায় না বুঝি আমি আমার লক্ষি বউটার সাথে যখন মন চাইবে তখনি সোহাগ রাত করবো..

আদ্রিতাঃ এ্যা আপনার এসব বলতে লজ্জা করতেছে না..

সাঈদঃ না তো আমি কী অন্য কাউকে বলছি আমি তো আমার পিচ্চি বউটাকে বলছি

আদ্রিতাঃ আমি পিচ্চি

সাঈদঃ হুম না হলে এমন কথা বলতে পারতে না

আদ্রিতাঃ আপনিও পিচ্চু

সাঈদঃ হা হা পিচ্চি টা বলে কী এবার রুমে চলো না হলে ঠান্ডা লেগে যাবে..

আদ্রিতাঃ রুমে যাওয়া মতলব নাকি আলাদা কিছুর..

সাঈদঃ রুমে গেলেই বুঝতে পারবে..

রুমে এসে
এক টান মেরে আদ্রিতাকে বুকে নিয়ে আসলাম আদ্রিতাকে কিছু বলার সুযোগ না দিয়েই দুই ঠোঁট এক করে দিলাম

তার পর দু জনে ভালোবাসার গভীর সাগরে হারিয়ে গেলাম..

সকাল বেলা..

আদ্রিতাঃ ঘুম থেকে উঠে গোসল টা সেরে নিলাম..

রুমে এসে আয়নার সামনে চুল গুলো ঠিক করতেছিলাম ঠিল তখনি..

সাঈদঃ সকাল বেলা পানির ফোটা ছিটকে ছিটকে মুখের উপর পড়তেছিলো যার ফলে ঘুমটাই ভেঙ্গে গেলো ঘুম থেকে উঠেই ওয়াও আদ্রিতা গোসল করে নিজের চুল গুলো ঠিক করতেছিলো আর তার চুলের সুবাস পুরো রুমটাকে গন্ধে ভরিয়ে দিচ্ছে তাই পিছন থেকে জরিয়ে ধরলাম..

আদ্রিতাঃ সকাল সকাল বেলা আবার শয়তানি বুদ্ধি মাথায় চাপলো নাকি..

সাঈদঃ হুম

আদ্রিতাঃ এখন কিছু করবেন না বলছি এই মাএ গোসল করলাম..

সাঈদঃ গোসল করছো তা কী হয়েছে দরকার হলে আরেকবার করবে..

আদ্রিতাঃ পারবো না..

সাঈদঃ পারবে বলতে না বলতেই দুই গালে দুটা চুমু দিয়ে দিলাম
ঠিক তখনি..

আদ্রিতাঃ ছাড়ুন না সেই কখন থেকে ফোনটা বেজে যাচ্ছে.

সাঈদঃ ধুর কত রোমান্টিক মুডে ছিলাম ফোনটা আসার সময়ই ও পেলো না..

আদ্রিতাঃ হুম হ্যালো..

আসিফঃ ম্যাডাম আমি স্যার এর অফিসের ম্যানেজার বলতেছি..

আদ্রিতাঃ জ্বী বলুন ফোনটা লাউড স্পিকার দিয়ে..

আসিফঃ ম্যাডামে আমাদের প্রতেকটা শেয়ার এর প্রায় চারশো কোটি টাকা লোকশান এভাবে চলতে থাকলে একসময় আমাদের অফিস বন্ধ করে রাস্তায় বসতে হবে..
এ ছাড়া আর কোনো উপায়াই নেই স্যার আপনার নামে যে শেয়ারটা দিয়েছে তা দিয়েই এখন আমাদের অফিসটা চলতেছে আপনার নামের এই শেয়ারটা আমাদের শেষ ভরসা আপনি প্লিজ স্যারকে বলে দিয়েন..


সাঈদঃ কথা গুলো শুনার পর মাথাটা পুরো ঘুরতে শুরু করছে এই মাসে পুরো চারশো কোটি.টাকা লোকসান ম্যানেজার তো ঠিকি কথা বলেন এভাবে চলতে থাকলে তো আমাদের অফিসটাই বন্ধ হয়ে যাবে …

আদ্রিতাঃ কী হলো আপনার আপনাকে এ রকম দেখাচ্ছে কেনো..

সাঈদঃ পুরো চারশো কোটি টাকা এ মাসে লোকসান মানেটা বুঝতে পারছো সামনের মাসে যদি আরো চারশো কোটি টাকা লোকসান হয়ে যায় তাহলে আমাদের রাস্তায় বসা ছাড়া আর কোনো উপায় নেই..

আদ্রিতাঃ এভাবে বলবেন না..

সাঈদঃ আমাকে এখনি অফিসে যেতে হবে না হলে অনেক বড় ক্ষতি হয়ে যাবে..

আদ্রিতাঃ এত সকাল বেলা না না আপনি একা যাবে না..

সাঈদঃ যেতেই হবে এ ছাড়া আর কোনো উপায় নেই…


তামান্নাঃ সাঈদ আজ তোকে কেউ বাচাতে পারবে না একবার শুধু অফিসে আয় তার পর বুঝবি আসল মজা আজ উপর ওয়ালাও তোকে বাচাতে পারবে না…

তামান্নাঃ যেই সাঈদ অফিসে ডুকবে ওমনি পুরো বিল্ডিং টা ভেঙ্গে মাটির সাথে মিশে যাবে আর সেখাই চাপা পড়বে মরে যাবে হা হা…

সাঈদঃ তাড়াতাড়ি অফিসে চলে আসলাম এত সকালে হয়তে কেউ আসে নি আমার কেবনি ডুকতেই পুরো বিল্ডিং টা কাপতে লাগলো ওমনি..

চলবে..