ভোরের কুয়াশা পর্বঃ২১

0
1241

ভোরের_কুয়াশা
#পর্বঃ২১
#Misty_Meye(মরিয়ম)

___হুম,,,কে আপনি,,,,,,(আমি)

___আমি তোমার হ্যাজবেন্ড।

___ও তাই নাকি,,,,,

___হ্যা,,,,কেনো তোমার কি মনে হয়?

___আপনি আমার বর ঠিক আছে।কিন্তু তা কিছুদিনের। আর ও আমার হবু বর। ফিউচার হ্যাজবেন্ড হবে ও আমার।

___হবে।এখনো হয়নি।তাই এতো লাফালাফি করার কিছু নেই।

___ছাড়ুনতো।আমাকে কবে ডিভোর্স দিবেন সেটা বলেন?

___কেনো?তাড়াতাড়ি ডিভোর্স দিলে তাড়াতাড়ি ওকে বিয়ে করতে পারবে তাই না।(শিশিরের দিকে ইশারা করে)

___হুম,,,ঠিক তাই,,,,,,

___দিবোনা ডিভোর্স। কি করবে কি তুমি।

___না দিলে ও বিয়ে করবোই আমি।

___পারবে না।

___কেনো পারবোনা,,,

___কারন,,,,কিছুনা,,,,,

___ওহ,,তাহলে আমি ঘুরতে যাচ্ছি।শিশির তুমি রেডি হও। আমি ও রেডি হয়ে আসছি।

___ওকে,,,,,,জানু,,,,(শিশির)

___হুম,,,,,???

তারপর আমি রেডি হয়ে শিশিরের রুমে যাই।গিয়ে দেখি বেচারা রেডি হতেই পারছেনা।কি পরবে তা ভেবেই পাচ্ছেনা।বিন্দু শিশিরকে সাহায্য করছে।দুইজনকে দেখে মনে হচ্ছে বেশ ভালো সময় কাটাচ্ছে। আমি ওদের মধ্যে আর না গিয়ে আমার রুমে দিকে যেতে গেলে দেখি রিমি ও আমাদের রুমে গিয়ে ভোরের সাথে কথা বলছে।আর ভোর রেডি হতে হতে রিমির সাথে কথা বলছে।

___ওই শাঁকচুন্নিটা আবার আমাদের রুমে আসছে কেনো?আবার ভোর এখন রেডি হচ্ছে।এখন তোর আসার দরকারটা কি?আর ভোরইবা কই যাবে যে রেডি হচ্ছে।ওরে বাবা,,,,আবার কি সুন্দর করে সাজতাছে।বলি এতো সুন্দর করে সাজার কি আছে।এই জন্যই শাঁকচুন্নিগুলা খালি তোর পিছন পইরা থাকে,,,,,ভোরের বাচ্চা ভোর,,,,,তুই তোর সাজা বন্ধ কর,,,,,,(আমি)

দূর যেখানে খুশি যাক।যতো পারুক সাজুক ওই ভোরের।তাতে আমার কি,,,,,,,,,(মন খারাপ করে)আমি এখন ঘুরতে যাবো। কি মজা,,,,,,দাঁড়িয়ে থাকলে চলবে না।আমি যাই গিয়ে দেখি শিশিরের হলো কিনা,,,,,,

শিশিরের রুমে গিয়ে দেখি ও রেডি হয়ে গেছে।শিশির তুমি রেডি হয়েছো?(আমি)

___ওহ,,কুয়াশা তুমি,,,,,হ্যা আমার হয়ে গেছে।চলো।

___বিন্দু তুমি ও চলো।আমাদের সাথে।

___হুম,,,,বিন্দু চলো,,,, ভালো লাগবে তোমার।

___না ভাবি।আজকে আমার একটু কাজ আছে।তাই আজকে যেতে পারবো না।তোমরা যাও,,,,আমি পরে যাবো।

___ওহ,,,,আচ্ছা।

তারপর আমরা সবাই ড্রইং রুমে এসে দেখি ভোর আর রিমি ও আসছে।আমরা চলে যেতে নিলে,,,ভোর ডাক দেয়,,,,

___কুয়াশা,,,,,

___কিইইইই,,,,কিছু বলবেন?

___আমরাও বের হচ্ছি।

___হুম।তো,,,,, আপনারা বের হবেন তাতে আমি কি করবো।

___আমরা একসাথেই যাবো।বুঝেছো।

___কিইইইইই,,,,,কেনো?একসাথে কেনো যাবো আমরা,,,,,,

___আমি বলেছি তাই,,,,,

___আপনি বললেই হবে নাকি,,,,,

___হুম,,,,, আমি যা বলবো তাই হবে,,,,,

___কখনোই না,,,,

___অবশ্যই,,,,,, হ্যা।

___যাবো না,,,,,,আমি,,,,

___অহ,,,,,,,এতো ঝগড়া করছো কেনো তোমরা।,,,,,,,ভোর যখন চাইছে তখন চলো একইসাথেই যাই আমরা।(শিশির)

___হ্যা কুয়াশা চলো না প্লিজ,,,,,তুমি শিশির আর আমি আর ভোর একসাথেই ঘুরতে যাই।অনেক মজা হবে। প্লিজ চলো।(রিমি)

___ঠিক আছে।তোমরা যখন বলছো,, তাহলে চলো,,,,

তারপর আমরা গাড়িতে উঠে পড়ি।ভোর আর রিমি সামনে এবং আমি আর শিশির পেছনের ছিটে বসেছি।সারা রাস্তায় আমি আর শিশির কথা বলছি।আর ভোর রাগে শুধু জ্বলছে আর ফুলছে।আমার তা দেখে আরো ভালো লাগছে।

তারপর আমরা কিছুক্ষণ ঘুরে শপিং করতে ঢুকি।ওখানে আমার সব কিছু আমি শিশিরকে দেখিয়ে দেখিয়ে কিনছি।আবার শিশিরের সব কিছু আমি পচ্ছন্দ করে কিনছি।ভোরের দিকে আমি তেমন খেয়ালই করছি না।আর রিমি ও ওর মতো কিনছে।ভোর একপাশে দাঁড়িয়ে দাঁড়িয়ে শুধু দেখছে।

তারপর আমরা শপিং করে একটা রেস্টুরেন্ট এ গিয়ে লাঞ্চ করে নেই।এখানে ও আমি আর শিশির খাবার একটু খাইয়ে দিই।ভোর তা দেখে আরো রেগে যায়।

(আসলে আমি ভোরকে ভোরের মতো করেই রাগাতে চাই।যাতে ভোর আমাকে নিজে বলে ও আমাকে ভালোবাসে।)
(আর ওদিকে ভোরও চায় কুয়াশা যেন ওকে বলে যে কুয়াশা ভোরকে ভালোবাসে।কিন্তু কেউই ভালোবাসি কথাটা আগে বলবে না বলে ভেবে রাখছে।)

এরপর অনেক ঘুরে বাসায় চলে আসি।বাসায় ঢুকে আমি বাসায় এসে ফ্রেশ হয়ে নিচে গিয়ে রাতের খাবার বানিয়ে ফেলি।

ডাইনিং টেবিলে সকলে একসাথে খেতে বসে গেছে।

___ড্যাড,,,,,, আমি যতো শিঘ্রই সম্ভব বিয়েটা করে ফেলতে চাইছি।(ভোর)

___তাড়াতাড়ি মানে,,,,,(ভোরের বাবা)

___আমি আর অপেক্ষা করতে চাইছি না,,,,,,তাই,,,,,(জেদ দেখিয়ে)

___তা ঠিক আছে।কিন্তু তোমাদের ডিভোর্সটা,,,,,,

___ড্যাড,,,,আমাদের তো আইনি ভাবে বিয়ে হয়নি।তাই ডিভোর্স দেওয়ার ও কোন মানে নেই।

___কিন্তু তবুও,,,,,,

___না ড্যাড,,,,,কোন তবু নেই।ডিভোর্স দিতে গেলে অনেক ঝামেলা হবে।

___আচ্ছা,,,, ঠিক আছে।আমি সব ব্যবস্থা করছি।তুমি চিন্তা করো না।

___আংকেল,,,,আমি আর কুয়াশা ও ভাবছি আমরা ও তাড়াতাড়ি বিয়ে করে ফেলবো।আর ভোর যেই দিন বিয়ে করবে সেই দিনই আমরা ও বিয়ে করে ফেলবো।তাহলে একসাথেই বিয়েটা হয়ে যাবে,,,,,(শিশির)

___বেশ,,,,,তাহলে আমি দুটো বিয়ের আয়োজন করি।কেমন?

___হুম,,,,,,,

বিন্দুর কথাটা শুনে মন খারাপ হয়ে যায়।আর কেউ কোন কথা না বলেভখেয়ে নেয়।

তারপর সকলে খেয়ে যে যার রুমে চলে যায়।আর আমি রুমে গিয়ে,,,,,

___কি জেদ,,,,,,ওই শাঁকচুন্নি রিমিকে বিয়ে করবে বজ্জাতটা।কতো খারাপ,,,,,, কুত্তা,,,,,,তোরে আমি কুচি কুচি করে কাটবো।আমি তোর সাথে থাকবো না।চইলা যামু।আমি সত্যি সত্যিই শিশিরকেই বিয়ে করমু।তুই ও দেখ হারামজাদা।আমি ও পারি,,,,,(রাগে চোখ মুখ লাল করে)

তারপর ভোর আসলে আমি বালিশ নিয়ে মেঝেতে ঘুমাতে চলে যাই।

___কি ব্যাপার তুমি নিচে ঘুমালে যে,,,,,(ভোর)

___তাতে কি হইছে।আপনি তো আর কয়দিন পর বিয়ে করবেনই,,,,,তখন আপনি আপনার বউ নিয়েই খাটে ঘুমাইয়েন।আমি কে হই আপনার।আমিতো কেউ হইনা,,,,তাই আপনার সাথে ঘুমানোর কোন অধিকার ও আমার নেই।আপনিতো বললেইনই যে আমাদের আইনিভাবে বিয়ে হয়নি।সুতরাং এই বিয়েরতো সরকারি কোন হিসাব নেই।ইসলামি শরিয়তেও যে আমাদের বিয়ে হয়েছে তা হয়তো আপনি ভুলেই গেছেন।আবার হয়তো মানেনই না।

___তুমিও তো বিয়ে করবে বলছো।,,,,,,,,,,

___হুম,,,,সেই জন্যই আমি আলাদা ঘুমাতে চাইছি,,,,,

___ঘুমাও,,,,,,বেশি করে ঘুমাও,,,,,তোমাকে খাটে আসতে হবে না,,,,,,,

___আমি আসছি ও না।

তোমাকে আসতে,,,,,,,,,,,,,,,,,,,,,

চলবে………………..