ভোরের কুয়াশা পর্বঃ ১৩

0
968

#ভোরের_কুয়াশা
#পর্বঃ১৩
#Misty Meye(মরিয়ম)

___কি হলো এভাবে মুখ করে আছো কেনো,,,,

___ইচ্ছা হইছে তাই,,,,(মুখ বাকিয়ে)

বলে আমি চলে যাই গোসল করতে।গোসল শেষ করে নিচে এসে দেখি ভোর বসে বসে মোবাইল টিপছে।এহহহহ,,,,আমাকে ফোন ধরতে দেয় না।আর নিজে ফোন, ল্যাপটপ সব চালাবে,,,,,(মুখ বাকিয়ে)

___এই যে,,,,আমার হয়ে গেছে,,,,চলুন,,,,,,

___হুম,,,,,বলে ভোর আমার দিকে তাকিয়ে আছে।যেনো চোখ সরাতেই পারছে না।

(কুয়াশা কালো রঙের শাড়ি পরেছে।আর চুল থেকে টুপ টুপ করে পানি পড়ছে কোমরে।ভোর তা দেখে হা করে আছে,,,,কুয়াশাকে আজ অপরুপ সুন্দর লাগছে।এখন কুয়াশাকে যে দেখবে সেই ঘায়েল হয়ে যাবে।আর ভোরতো সেই কবে থেকেই কুয়াশার প্রেমে পড়ে গেছে।ভোর কুয়াশার দিকে অপলকভাবে তাকিয়ে আছে।চোখ সরছেই না।ভোর কুয়াশার গোলাপি ঠোটে আটকে গেছে।ভোরের ইচ্ছা করছে কুয়াশাতে মিশে যেতে।কুয়াশার ডাকে ভোরের ঘোর কাটলো।)

___কি হলো,,,,,এভাবে আমার দিকে তাকিয়ে আছেন কেনো?আমি জানি আমি সুন্দর। তাই এভাবে না দেখলে ও চলবে।

___তুমি সুন্দর কে বলছে তোমাকে,,,,

___কে বলছে মানে,,,,আমি জানি,,,

___তা হলে তুমি ভুল জানো,,,,,

___আমি ভুল জানি মানে,,,,

___মানে,,,তোমাকে দেখতে একেবারে পেত্নীদের মতো লাগছে,,,,,

___কি,,,,আমাকে পেত্নী লাগছে,,,,এটা আপনি বলতে পারলেন।

___না বলার কি আছে,,,,পেত্নিকেতো পেত্নিই লাগবে তাই না।আর এটা বলতে সমস্যা কি?

___আমি মোটেই পেত্নি না।আমাকে কত্ত সুন্দর দেখায়,,,,আমি জানি,,,,,

___ভুল জানো তুমি,,,,,তোমাকে যে আমি বিয়ে করছি এটাই কতো।তা না হলে তোমার মতো পেত্নীকে কে বিয়ে করতো?আমি ভাবছি তোমাকে আমি বিয়ে করলাম কিভাবে,,,,,(মজা করে)

___কিইইইইই,,,, এটা আপনি বলতে পারলেন।

___হুম,,,,,না বলার কি আছে।তো এবার,,,, চলো,,,,রান্না করতে হবে,,,,,

___হুম,,,,,যাইতে তো হবেই না হলে আবার আমাকে আপনার হাতের ওই জঘন্য খাবার খেতে হবে,,,,,

___তাই নাকি,,,,আমার হাতের রান্না জঘন্য।

___নাহ,,,,,জঘন্যর থেকেও বেশি জঘন্য।

___বেশ,,,,তাহলে তুমিই রান্না করো।আমি বসে বসে দেখি,,,,

___নাহ,,,,আমি কষ্ট অরে রান্না করবো আর আপনি বসে বসে খাবেন,,,,তা হবে না।তা হবে না।

___কিন্তু তুমিতো বলো আমার রান্না ভালো না তাহলে আমি কি করবো?

___না,,,,আপনার রান্না যদিও ভালো না।কিন্তু তবুও আপনাকে আজকে আমার সাথে রান্না করতে হবে।

তারপর দুইজন মিলে রান্না শেষ করে একসাথে খেয়ে ভোর অফিসের কিছু কাজ শেষ করে আমাকে জরিয়ে ধরে শুয়ে পড়ে।

___আচ্ছা,,,,শোন,,,,আমাকে কাল সকালে ডাক দিয়ে দিবে।(ভোর)

___কেনো?

___অফিসে যাবো তাই।

___ডাকতে হবে কেনো?আপনি নিজেইতো উঠতে পারবেন।আমার ডাক দেওয়ার কি আছে?

___পারবো।কিন্তু তুমি আমাকে ডেকে তুলবে।যা বলছি তাই যেনো হয়,,,,,

___হুম,,,,,

তারপর আমি আর কিছু না বলে ঘুমিয়ে পড়ি।তারপর ভোর ও ঘুমিয়ে পড়ে।সকালে আমি ভোরকে আস্তে করে সরিয়ে ফ্রেশ হয়ে নাশতা বানিয়ে ফেলি।এখন আমি মোটামুটি ভালোই রান্না পারি।শিখে নিয়েছি আরকি,,,,,

তারপর ভোরকে ডাকতে উপরে যাই।গিয়ে দেখি বজ্জাতটা এখনো ঘুমাচ্ছে।এরপর আমি ভোরকে ডাকতে শুরু করি,,,,

___এই যে,,,,উঠুন।আপনার অফিস যাওয়ার সময় হয়ে গেছে।

___…………….

___কি হলো উঠুন,,,,,,

___উফঃ কুয়াশা। ডিস্টার্ব করো নাতো প্লিজ,,,,,

___মানে,,,,, আপনি অফিস যাবেন না,,,,,

___…………….

___বুঝেছি,,,,,আপনি এইভাবে উঠবেন না।দাড়ান, আপনি উঠবেন না আপনার নানাও উঠবে।হুম,,,,,

বলে বেড সাইড টেবিল থেকে পানির জগটা নিয়ে সোজা ভোরের মুখে ঢেলে দিই,,,,,

ভোর ধরফরিয়ে উঠে বলে,,,,,,

___কুয়াশাআয়ায়ায়ায়ায়ায়ায়া,, কি করলেটা কি তুমি,,,,,,

___কি করেছি কি আমি,,,,,,,,

___কি করছো মানে,,,,তুমি জানোনা তুমি কি করছো?

___না তো।আমিতো ভুল কিছু করিনি।আমিতো ভালো কাজই করছি।

___আমার উপর পানি ঢালা তোমার ভালো কাজ।

___হুম,,,,ভালো কাজই তো।

___কিইইইইইই,,,,,,,,,,,

___দেখুন আপনি আমাকে কালকে রাতে কি বলছিলেন।যে আপনি আজকে সকালে অফিস যাবেন।আর আমি যেন আপনাকে ডেকে দিই।তাইতো।,,,,আর আমি আপনাকে ভালো করেই ডাকলাম।কিন্তু আপনার আমার কথা কানে গেলোনা।পড়েতো আবার আপনি আমাকে কথা শুনাতেন।তাই আমি আর কি করতাম।বাধ্য হয়েই আপনার মুখে পানি ঢালি আপনাকে উঠানোর জন্য।

ভোর চোখ পাকিয়ে বলে

___তার জন্য এক জগ পানি ঢালতে হবে,,,,

___না ঢাললেতো আর উঠতেন না।তাই ঢাললাম আরকি,,,,,

ভোর মুখ লাল করে রাগ নিয়ে উঠে ফ্রেশ হয়ে নিচে আসে।নিচে এসে দেখে আমি সব নাশতা বানিয়ে ফেলেছি,,,,,

___বাহঃ আজকে কিভাবে তুমি নিজে নিজেই সব নাশতা বানালে,,,,

___আপনিইতো কালকে রাতে আমাকে বললেন যে আজকে থেকে যেন আমিই রান্না করি।

___হুম,,,,তা ভালো করেছো।দুপুরের আর রাতের রান্নাও কিন্তু তুমি করে রাখবে,,,

___হ,,,, বিনা পয়সায় চাকর পাইছেনতো তাই আমাকে দিয়ে যা ইচ্ছা তাই করাচ্ছেন।

___বিনা পয়সার চাকর মানে,,,,,কুয়াশা তুমি আমার বউ,,,,বুঝেছো।

___হুম,,,,,

___আর শোন পালানোর একদম চেষ্টা করবেনা।তোমার উপর আমার নজর সব সময়ই আছে কিন্তু,,,,

___কিভাবে,,,,,

___সেটা,, তোমার জানা লাগবে না।

___আচ্ছা,,,বাড়িতে কোন ক্যামেরা-ট্যামেরা লাগিয়েছেন নাকি,,,,,

___বললাম না।তোমার না জানলেও চলবে,,,,,

___জানলে কি এমন হয়,,,,

___অনেক কিছু,,,,,বসো এবার।

___কেনো?

___কেনো মানে,,,,,এখনো তুমি বুঝতে পারোনি আমি কেনো তোমায় বসতে বলছি,,,বসো বলছি,,,,,

___???

তারপর আমি বসে পড়ি।আর ভোর আমাকে ও নিজে খেয়ে অফিস চলে যায়।আর আমাকে বাইরে থেকে আটকিয়ে যায়।আর আমি সারাবাড়ি তন্নতন্ন করে খুজছি,,,কোথাও ক্যামেরা আছে কিনা।কিন্তু কিছুই খুজে পাচ্ছি না।

দূর,,,, ভালো লাগেনা।মেজাজটা গরম হয়ে,,,,,,,,,,,,,,,,,,,,,

চলবে…………………..