সি আইডি অফিসারের ভালোবাসা Part-09

0
1096

গল্প: সি আইডি অফিসারের ভালোবাসা
#Raihan
Part-9

.
মোসলিমার কথা শোনে চাদনীর দিকে তাকিয়ে দেখি মেয়েটার চোখ দুটো সত্যিই খুব ফোলা।
দেখে মনে হচ্ছে আসলেই সারা রাত ঘুমাই নি।
মুহূত্বেই যেন মেয়েটার উপর থেকে সকল রাগ ধূলিসাৎ হয়ে গেলো।
আমি আর কিছু না বলে সোজা রুমে চলে গেলাম।
একটু পর চাদনীও আমার পেছনে পেছনে আসলো__
এসেই বলতে থাকলো___
_আচ্ছা আমি কি তোমার কাছে এত ই অপরাধ করে ফেলেছি?
যার জন্য তোমি আমাকে এমন বিহেভ করছো?
আমি সব কিছুর জন্য সরি বললাম তো।
আর মোসলিমার কাছ থেকে তোমার ব্যপারে সব কিছু জানার পরে আরও অপরাধবোধটা আমাকে কুড়ে কুড়ে খাচ্ছে।
প্লীজ ক্ষমা করে দাও!
_কি রে ভাইয়া চাদনী আপুকে ক্ষমা করবি নাকি আমি এখান থেকে বাড়িতে চলে যাবো?
তাড়াতাড়ি ক্ষমা কর না হলে সত্যিই আমি এখান থেকে চলে যাবো।
চলে গেলাম কিন্তু।{মোসলিমা}
_আরে আরে বোন আমার করছিস কি?
ওকে ক্ষমা করে দিয়েছি।
তবুও রাগ করিস না প্লীজ!{আমি}
হঠাৎ চাদনী ক্ষমা করে দেওয়ার কথা শোনে মোসলিমা আনন্দে লাফিয়ে ওঠে।
আর চাদনীও মোচকি একটা হাসি দিয়ে যেই মাত্র রোম থেকে বেরিয়ে যেতে চাইবে ঠিক তখনি…

_কি আপু! ভাইয়াকে থ্রেড করে তোমাকে ক্ষমা করালাম।
আর তোমি কি না আমাকে না জানিয়েই চলে যাচ্ছ?{মোসলিমা}
_সরি,সরি বোন আমার আসলে আমার খুব তাড়া আছে।
তোমি তো জানোই কালকে সন্ধ্যা থেকে আমি তোমার সাথে।
আর এদিকে হোষ্ঠেলে কেউই জানেনা আমি কোথায় আছি।
তাছাড়া কালকে রাতে তো বললাম আমাদের ভার্সিটির ব্যপারটা।{চাদনী}
_আরে মোসলিমা ওকে যেতে দে।
সি.আই.ডি অফিসারের ডিউটিটা না হলে মিস হয়ে যাবে তো।{আমি}
আমার কথা শোনে দেখি চাদনী আমার দিকে অবাক হয়ে তাকিয়ে আছে…?
_মা…..মানে!
শাকিল কি বলছো তোমি?{চাদনী}
_না ইয়ে মানে আপনি তাড়াতাড়ি ভার্সিটিতে যেতে চাচ্ছেন তো তাই আর কি বললাম আপনি পুলিশদের মত ই যেন মনে হচ্ছে ডিউটিতে যাচ্ছেন।…?(আমি}
কথাটা কাটানোর জন্য মিথ্যা বললাম।

_ভাইয়া জানো
চাদনী আপু একজন সি.আই.ডি অফিসার।
_omg তাই নাকি…?{আমি}
_হুম!
আর আপু আমার ভাইয়াও না…..
মোসলিমা এইটুকু বলার সাথে সাথেই আমি ওর মুখটা চেপে ধরি।
_তোমার ভাইয়াও কি বোন…?
_না ইয়ে মানে আমার ভাইয়াও ঐ ভার্সিটিতেই পড়ে।{মোসলিমা}
কথাটা কাটানোর জন্য মিথ্যা বললো মোসলিমা।
_ও আচ্ছা।{চাদনী}
_মোসলিমা যা গিয়ে দেখ কিচেনে সব রাখা আছে
রান্নাটা করে ফেল।
কাল সারা রাত কিচ্ছু খাওয়া হয় নি।
মাসুদ,সবুজ,রেজাও একটু পর চলে আসবে।
ওরাও মনে হয় না খেয়ে আছে।
তুই তাড়াতাড়ি রান্নাটা সেড়ে ফেল।
খাওয়া দাওয়া শেষ করে আজ তকে ঘুরতে নিয়ে যাবো।
এত ভালো একটা কথা বললাম তবুও দেখছি মোসলিমা মন বিরক্ত করে দাড়িয়ে আছে।
অথচ কখনো ওকে ঘুরতে নিয়ে যাওয়ার কথা বললে খুশিতে লাফাতে থাকে।
কিন্তু আজকে ঘুরতে নিয়ে যাওয়ার কথা বলছি
কিন্তু তাতে ওর কোনো রিয়েকশন ই দেখতে পেলাম না।
_কি রে মন খারাপ করে দাড়িয়ে আছিস কেন? {আমি}
_আমি তর সাথে ঘুরতে যাবো না।{মোসলিমা}
_কেন?
আমি আবার কি করলাম? {আমি}
_তোই কিছু করিস নি।
আমি আজকে চাদনী আপুর সাথে ঘুরতে যাবো।
আর তুই আমাদের সাথে যাবি হুহ।{মোসলিমা}
_না আমি পারবো না।
_আচ্ছা থাক তোই তর পারা না পারা নিয়ে।
আমি চললাম বাড়ির দিকে।
আর কখনোও আসবোনা তর বাসাত হুহ..?
কথাটা বলেই মোসলিমা রাগ দেখিয়ে চলে যেতে লাগলো।
_আরে আরে লক্ষী বোন আমার সরি,
আচ্ছা আমি যাবো।
আমার কথা শোনে মোসলিমা খুশি হয়ে আনন্দে লাফাচ্ছে
আর চাদনী দেখি মোচকি মোচকি হাসছে।
_ওকে তাহলে আমি এখন আসি বোন…?
বিকেলে না হয় আবার আসবো।{চাদনী}
_আচ্ছা আসো আপু।
কিন্তু তাড়াতাড়ি আবার এখানে আসবে কিন্তু।
তোমি আসলেই আমরা ঘুরতে বের হবো।
কথাটা বলে মোসলিমা রান্না করার জন্য কিচেনে চলে গেলো।
আর চাদনী আমার দিকে তাকিয়ে একটা হাসি দিয়ে রুম থেকে বেরিয়ে গেলো।
চাদনী রূম থেকে বেরিয়ে যাওয়ার সাথে সাথেই শালারা সবাই এসে রুমে হাজির।
_কি রে মামো মেয়েটা কি তকে আবার থাপ্পর দেওয়ার জন্য এইখানে আসছিলো নাকি…? {মাসুদ}
_সেদিন তো সব মানুষের সামনে মেয়েটা তকে গালে চর দিছিলো।
এহন তো তুই রুমে একলা ছিলি।
না জানি একা পাইয়া তকে কোথায় কোথায় চর দিছে…? {রেজা}
_আরে তরা যা ভাবতাছছ তা না।
_তা না তো কি?{রেজা}
_মেয়েটা আমার কাছে ক্ষমা চাইতে আইছিলো…?{আমি}
_তাই নাকি?
পাঠ মারার আর জায়গা পাছ না।
তোই কইলি আর আমরা বিশ্বাস দিলাম তাই না?{সবুজ}
_বিশ্বাস না হলে মোসলিমাকে জিজ্ঞাস কর।{আমি}
_ মা….মানে মোসলিমা কখন আসলো?
_সন্ধায় আসছে।
আর সারা রাত চাদনী মোসলিমার সাথেই ছিলো
তারপর আমি ওদেরকে সব কিছু খুলে বললাম।
আর আমার কথা শোনে সবাই অবাক হয়ে গোলো।
_তাহলে তো দেখছি মামো সাপ বেজি আত্মসমর্পণ করছে।?
এহন এই খুশিতে কি ট্রিট দিবি সেটা বল।{রেজা}
_হ কালকে রেস্টুরেন্টে নিয়া বাশ খাওয়াইলি আজকে আবার কোন আক্কেলে ট্রিট চাস হুম??
বেশি ট্রিট ট্রিট করলে না সবার দাত ভাইংগা বিল্ডিং বানামো …?{আমি}
_কি রে ভাইয়া কার দাত দিয়া বিল্ডিং বানাতে চাচ্ছিস..?
তাড়াতাড়ি সবাইকে নিয়ে খেতে আয়।।(মোসলিমা}
_ওকে আসছি।
ঐ হালারা সবাই চল তাড়াতাড়ি খেয়ে ভার্সিটিতে যা।
দেখে আয় ঐখানের খবর কি?
আর সেখানের পরিস্থিতি জেনে আমাকে জানাবি।
আর যদি কারো উপর সন্ধেহ হয় তাহলে সাথে সাথেই আমাকে জানাবি এমন কি সেটার প্রতি কড়া নজর রাখবি।
আর ব্যুরোতে বলে দে ওরা যেন আজকে পূরো ভার্সিটি এলাকাটি তল্লাশি করে।
কারণ আজকে যে এই ভার্সিটিতে কোনো খুন হইনি সেটা হয়তো ইতিমধ্যে অপরাধ চক্ররা জেনে গেছে।
সো তল্লাশি করলে অবশ্যয় কোনো ক্রু পাওয়া যেতে পারে।{আমি}
_আচ্ছা। আর তুই যাবি না..?{সবুজ}
_না আজকে আর যেতে পারবো না।
মোসলিমাকে নিয়ে একটু ঘুরতে যেতে হবে।
_ও আচ্ছা।{সবুজ}
তারপর ওরা খেয়ে দেয়ে ভার্সিটির উদ্দেশ্যে চলে যায়
আর আমি থেকে যায়।
কারণ মোসলিমাকে নিয়ে ঘুরতে যেতে হবে তাই।
ওদেরকে ভার্সিটির উদ্দেশ্যে বিদায় করে দিয়ে আমি পেনড্রাইভে কি আছে সেটা দেখার জন্য যেইমাত্র ল্যাপটপটা অন করবো ঠিক তখনি দেখি চাদনী দাড়িয়ে আছে।
চাদনীকে দেখে মোসলিমা অবাক হয়ে যায়।
_আরে আপু!
তুমি কখন এলে?
তোমার না বিকালে আসার কথা ছিলো…??{মোসলিমা}
_আমি খুব দুঃখিত বোন।
আমি আজকে তোমাদের সাথে যেতে পারবো না।…?{চাদনী}
হঠাৎ চাদনী যেতে পারবেনা শোনে মোসলিমার মুখটা মুহূত্বেই কালো হয়ে গেলো।
_যেতে পারবেনা কেন আপু?
কোনো সমস্যা…??
_হুম বোন!
কারণ তোমি তো ভার্সিটির ব্যপারটা জানো।
প্রতিদিন একটা না একটা খুন হয় ই।
কিন্তু আজকে আর কোনো খুন হইনি।
তাই আজকে ডিপার্টমেন্ট থেকে পুরো এলাকা জুড়ে তল্লাশি চালানো হবে।
যার জন্য আজকে আর আমাকে ছুটি দিবে না।…{চাদনী}
_কেন?
কে বলেছে তোমাকে ছুটি দিবে না?{মোসলিমা}
_A.C.P স্যারের কড়া আদেশ।
আজকে আমাদের ডিপার্টমেন্ট তল্লাশি চালাবে।
আর আমাদের ACP স্যার সহ আরও তিনজন অফিসার এই মিশনে নেমেছে।
আর তারা নাকি তিনজন অপরাধীকে অলরেডি গ্রেপ্তার করেছে শুনলাম।
কিন্তু আমি এখনও আমাদের ACP স্যারকে দেখতে পারি নি।
তাই আমি দুঃখিত বোন।
আরেক দিন না হয় তোমাদের সাথে ঘুরতে যাবো।{চাদনী}
এই কথা বলে চাদনী যখনি মনটা খারাপ করে রোম থেকে বেরিয়ে যাবে ঠিক তখনি__
_দাড়াও আপু!
তোমি আমাদের সাথে যাবে।
এটাই আমার শেষ কথা হুম..?{মোসলিমা}
_সম্ভব না বোন!
কারণ এটা ACP স্যারের আদেশ।{চাদনী}
_আরে রাখো তোমার ACP স্যার।
এমন ACP তো আমার রোমেই রেখে দেই।
হঠাৎ চাদনীর দিকে আমি ভ্রু কুচকে তাকাতেই মোসলিমা ওর জিহ্বাতে কামড় দেয়।
_তোমি আমাদের সাথে চলো আপু।
কোনো ACP তোমাকে কিছু বলবেনা।
চলো আমরা বিকেলে না।
এখনি ঘুরতে বের হবো।
আজকে আমরা সারা দিন ঘুরবো।{মোসলিমা}
_না এটা সম্ভব না।{চাদনী}
_আরে চলো তো।
খুজ নিয়ে দেখো আজকে তোমাদের ACP স্যার ও ঘুরতে বেরিয়েছে।
আজকে আর কোনো মিশন হবে না।
এ কথা বলে মোসলিমা চাদনীকে আর আমাকে টেনে নিয়ে চললো।
আজকে মোসলিমা ড্রাইভ করছে
আমি আর চাদনী পেছনে বসে আছি।
মনে হচ্ছে চাদনী কিছু বলতে চাচ্ছে কিন্তু বলতে পারছে না।
_কি কিছু বলবেন…?{আমি}
_না ইয়ে মানে! কিছু না।
_ওওও আচ্ছা।
_আচ্ছা একটা কথা জিজ্ঞাস করবো…?(চাদনী)
_হুম বলেন!{আমি}
_আপনি কি কারো সাথে রিলেশন করেন…??{চাদনী}
_হঠাৎ চাদনীর…….

to be continue
.
.