সে_কি_জানে Part-14

0
973

#সে_কি_জানে?
#Writter : Ishanur Tasmia [ Mira ]
#Part : { 14 }
.
.
.
আচমকা ছোঁ মেরে হাতে থাকা প্লেট ছুঁড়ে ফেলে দিলেন রেয়ান।।আমার হাতটা খুব শক্ত করে চেপে ধরেছেন তিনি।।তার দিকে তাকাতেই আঁতকে উঠলাম।।চোখগুলো ভীষণ লাল হয়ে আছে উনার।।তার এমন ভয়াবহ চেহারা দেখে আমি চুবসে গেলাম।।চুপচাপ মাথা নিচু করে দাঁড়িয়ে আছি ।।আর আমার দৃষ্টি মাটিতে পড়ে থাকা ফুচকার দিকে।।সাথে আমার নতুন ফ্রেন্ডদেরও।।তাদের মুখে ভয়ের ছাপ স্পষ্ট।। রেয়ানের এমন ব্যবহারে যথেষ্ট ভয় পেয়েছে তারা।।হঠাৎ রেয়ান ফুচকাওয়ালার দিকে তাকিয়ে শান্তভাবে বলে উঠেন…….

—” আপনি নিশ্চয়ই বিনা কারণে জেলে যেতে চাবেন না?? সো এ-ই যে মেয়েটাকে দেখছেন।।(আমার দিকে আঙ্গুল তুলে)তাকে জীবনেও নিজের দোকানের ফুচকা খাওয়াবেন না।।বুঝেছেন?? ”

রেয়ানের কথা শেষ হতেই ফুচকাওয়ালা তাড়াতাড়ি কাঁপা কাঁপা কণ্ঠে বলেন…….

—” জ্ব…জ্বী স্যার!! ”

রেয়ান ফুচকাওয়ালার দিকে একবার তাকালো।।তারপর তার হাতে ১০০ টাকার ৩টি নোট দিয়ে আমার ফ্রেন্ডদের উদ্দেশ্য করে বললেন……

—” তোমাদের ফুচকার ট্রিট আজকে আমি দিলাম।।আইন্দা মিরাকে ভুলেও ফুচকার ট্রিট দিবে না।। নাহলে…বাকিটা বুঝে নিও!! ”

বলেই আমাকে টানতে টানতে নিয়ে গেলেন গাড়ির দিকে।।
.
রেয়ান শান্ত ভাবে গাড়ি চালাচ্ছেন।।আর আমি বসে বসে উনার দিকে এক দৃষ্টিতে তাকিয়ে আছি।।বুঝতে পারছি না তখন তার ওভাবে করার কারন কি।।আমি রেয়ানের দিকে তাকিয়ে আছি সেটা হয়তো সে বুঝতে পেরেছে।।তাই উনি ড্রাইভ করতে করতেই আমাকে বলেন…..

—” কি হয়েছে?? এভাবে তাকিয়ে আছো কেন?? ”

তার এমন শান্ত ব্যবহারে আমার একটু সাহস হয়।।মিনমিনিয়ে তাকে বললাম…..

—” তখন ওভাবে করলেন কেন?? জানেন কত মানুষ আমাদের দিকে তাকিয়ে ছিল।।আর আমার ফ্রেন্ডরা,,,ওরা হয়তো আমার সাথে রাগ করেছে!! ”

—” তুমি ওখানে কি করছিলে?? ”

—” আসলে ভার্সিটি ছুটি হওয়ার অনেক্ষন পরও আপনি আসছিলেন না।।আর আমার ফ্রেন্ডগুলোও বলছিল ফুচকা খেতে।।আমার ফুচকা আর আইস্ক্রীম অনেক পছন্দ।।তাই আর মানা করি নি।। খেতে চলে যাই।।এতে এত রিয়েক্ট করার কি আছে?? ”

—” এতে এত রিয়েক্ট করার কি আছে মানে?? অনেক কিছু আছে।।আর ও-ই ছেলেটা তোমার সাথে কি করছিল?? ”

—” কোনটা?? রাফি?? ”

—” হ্যাঁ ও।।ওর সাথে কেন ফুচকা খেতে গেলে?? আমি বলেছিলাম না ওর কাছ থেকে দূরে থাকতে।।তারওপর তোমার ফেন্ডদের ৩টা মেয়ের মধ্যেই ২টা ছেলে।।এসব মানা যায়।।তাছাড়া কি খাচ্ছিলে যেন,,ফুচকা।।তাও আবার ফুটপাতের।।আল্লাহ জানে ওগুলো কি-না কি দিয়ে বানায়।।আর তুমি বসে বসে আরাম করে খাচ্ছিলে।।যদি কিছু হয়ে যায় তোমার।।এসব দেখেই তো মেজাজ খারাপ হয়েছে আমার।। ”

উনার কথাশুনে মুহূর্তেই রেগে গেলাম আমি।।লাইক সিরিয়াসলি?? এসব কারনে তিনি রাস্তায় এমন ব্যবহার করেছেন।।মানলাম রাফির থেকে উনি দূরে থাকতে বলেছেন।।সেটার জন্য তো আমার সময় লাগবে তাই না?? আমি কি কাউকে মুখের উপর বলতে পারবো নাকি” আমার থেকে দূরে থাকো।।কথা বলবা না আমার সাথে ” তাছাড়া কি বললেন যেন,,, ফুটপাতের ফুচকা ভালো না।।উনি কি জানেন না রেস্টুরেন্টের ফুচকা থেকেও ফুটপাতের ফুচকা ডের মজা।।জীবনে খাননি হয়তো।।তার জন্য এমন কথা বলতে পারলেন……

.

পার্কের একটা বেঞ্চে বসে রাগে ফুসছি আমি।।পাশেই রেয়ান গম্ভীর ভাবে বসে আছেন।।কি যেন করছেন ফোনে।।আমি যে রাগে ফুসছি এতে তার বিন্দু মাত্র মাথা ব্যথা নেই।।ফোনের দিকে গভীর মনোযোগে তাকিয়ে আছেন তিনি।।তার এভাবে ফোন টিপা দেখে আমি বিরক্ত।।চরম বিরক্ত!! সাথে রাগ যেন বেড়েই যাচ্ছে।।রাগ আর বিরক্তি একসাথে ভর করেছে আমার উপর।।মুহূর্তেই কপাল কুঁচকে এলো আমার।। রাগের জন্য বারবার হাত কচলাচ্ছি আমি!!রেয়ান ফোনের দিকে দৃষ্টি রেখেই গম্ভীর কণ্ঠে বললেন……

—” এভাবে রাগ করে কোনো লাভ নেই মরুভূমি!! এসব ফুটপাতের জিনিস আমি তোমাকে খাওয়াচ্ছি না।। তাও আবার রাফির সাথে।।যদি চাও তাহলে রেস্টুরেন্টে নিয়ে তোমাকে খাওয়াবো।। ”

—” আপনি বললেই হলো?? আপনি অনেক অসভ্য রেয়ান।।তখন ওমন বাজে ব্যবহার করা একদমই ঠিক হয় নি আপনার।। ”

—” তোমাকে বলতে হবে না মরুভূমি।।আমি জানি আমি কি করেছি।।তাছাড়া আমার কাজে আমি মোটেও অনুতপ্ত নই,, বরং আমার ভালো লাগছে ঐরকম ব্যবহার করে।। ”

—” আপনার লজ্জা,, অনুতপ্ততা এগুলো থাকলেই না কাজ করবে!!উফফ!! সবার সামনে কি কেল্লেংকারিই না করলেন আপনি।। ”

—” বেশ করেছি!! এখন চুপ থাকো।।একদম কথা বলবে না।।আমার এগুলো শুনতে বিরক্ত লাগছে।। ”

—” একশবার কথা বলব।।আপনার তাতে কি?? বিরক্ত লাগলে চলে যান এখান থেকে।। ”

—” মিরা সাট আপ।।আদার ওয়াইজ আই উইল কিস ইউ।। ”

কথাটা বেশ জোড়েই বললেন রেয়ান।।আশেপাশের সবাই তাকিয়ে আছে আমাদের দিকে।।এতে প্রচুর অস্বস্তি লাগছে আমার।।তার সাথে লজ্জাও।।লজ্জা যেন আমার মাথার ওপর চড়ে বসেছে।। কিন্তু রেয়ানের কিছুই হচ্ছে না।।সে এখনও ফোন চালাচ্ছেন।।একদম স্বাভাবিক!! যেন কিছু হয়ই নি।।

.
.
.
#চলবে??