স্বপ্নের_crush ? (in reality) Part-23+24

0
3058

স্বপ্নের_crush ? (in reality)
Part-23+24
writer : Borno ☺
ছদ্দনামঃ Samiya Arohi
.
অরনি আহানের সাথে কথা বলে রুমে চলে আসে,,
পরেরদিন,
আরোহিকে কলেজে যেতে দেওয়া হয়নি,, আরোহি জানেও না কেন,,,,,, দুপুরে আরোহির মা আরোহির রুমে এসে কিছু জুয়েলারি দিয়ে আর একটা নিউ শাড়ি দিয়ে চলে যায়,,, সব কিছু আরোহির মাথার উপর দিয়ে যায় । ?
হঠাৎ অরনি বলে,
অরনিঃ আপু এখন যদি তোর আহানের সাথে বিয়ে হয় তাহলে তুই অনেক খুশি হবি তাই না
আরোহিঃ ( অবাক হয়ে অরনির দিকে তাকিয়ে থাকে,, কারণ সে যে অহিকে ভালোবেসে ফেলেছে, সেটা তো অরনি জানে)
অরনিঃ ( আরোহির কাছে গিয়ে ওর হাত ধরে) আপু আমাকে একটা কথা দে প্লিজ
আরোহিঃ কি?
অরনিঃ আজকে যা যা হবে চুপচাপ মুখ বুজে সহ্য করবি ওকে?
আরোহিঃ ?? মানে?
অরনিঃ [(মনে মনে) মানে তোমারে এপ্রিল ফুল বানাবো] মানে কিছু না, দেখ তুই কিন্তু আমাকে কথা দিলি
আরোহিঃ (অবাক হয়ে) আমি আবার কখন তোকে কথা দিলাম?
অরনিঃ এই যে আমার হাতে হাত রেখে হ্যাঁ বললি
আরোহিঃ (অবাক হওয়ার চরম পর্যায়) আমি কখন হ্যাঁ বললাম ?
অরনিঃ আপু তুইও না আজকাল কতো কিছু ভুলে যাস হুহ, বাই দ্যা ওয়ে তুই কিন্তু কথা দিয়েছিস
আরোহিঃ ??
,,,,,,,,,,,,,,,,,,,,,,,,,,,,,,,,,,,,,,,,,,
বিকালে আরোহিদের বাসায় দুইজন মহিলা আর একজন বৃদ্ধা মহিলা আসেন,,, অরনি আরোহিকে সাজিয়ে দেয়, কিন্তু অরনির মাথায় এটা আসলো না মা কেন অরনিকেও সাজতে বললো?? আর আরোহি এটা ভাবছে ওরা কি কোথাও ঘুরতে যাচ্ছে? ?? [যার চিন্তা ভাবনাকে বলে গাধার চরম পর্যায়]
°°°°°°°°°°°°°°°°°°°°°°°°°°°
কিছুক্ষন পর আরোহির মা রুমে আসে,, দুই মেয়েকে কোনো হুরের থেকে কম লাগছে না, অরনি এমনিতেই ফর্সা আর সুন্দর, আর আরোহি মোটামুটি ফর্সা, একেবারে সাদা না তবে একেবারে শ্যামও না,, তবে কিউট ফেস, আরোহি আর অরনিকে দেখলে দুইজনকে সেম এজ মনে হয়, কারণ আরোহিকে কিউটনেস-এর জন্য ছোট মনে হয়,,
দুইবোনকেই সেম ড্রেস পড়ানো হয়েছে,,, মেরুন এবং গোল্ডেন কালারের শাড়ি, হাতে চুরি, খোপা করা, খোপায় স্টোন লাগানো, হালকা মেকআপ, ঠোটে রেড লিপস্টিক আর কানে বড় দুল৷ তবে বড় দুল পড়ার কারনে মালা পড়েনি ওরা,,,,
আরোহির মা ওদের ডাকতে এসে হা হয়ে তাকিয়ে থাকে, ওদের থুতনিতে হাত দিয়ে চুমু খেয়ে বলে,

আরোহির মাঃ মাশাল্লাহ!! আমার মেয়ে দুইটাকে তো অনেক সুন্দর লাগছে,,, ??
আরোহি আর অরনিঃ ☺☺
আরোহির মাঃ আচ্ছা শোন জুসের ট্রে টা অরনি নিবি আর পায়েসের ট্রে টা আরোহি নিবি, নে ধর,,, এবার দুইজন আমার সাথে আয়, আর উনাদের সামনে খবরদার অসভ্যতামী করবি না
অরনিঃ আম্মু!!!! ইহা তুমি কি বললা? আমরা অসভ্য? ?
আরোহির আম্মুঃ সেটা না আবার তোরা পুরোপুরি ভদ্রও না, এবার তাড়াতাড়ি চল, আর অরনি পাকামো করবি না,, সুন্দর করে কথা বলবি
অরনিঃ ? [ তারমানে যা ভেবেছিলাম সেটাই কি?]

আরোহি আর চুপ থাকতে পারলো না তাই অরনিকে জিজ্ঞেস করেই বসলো,
আরোহিঃ অরনি এসব কি হচ্ছে?? ?
অরনিঃ (ভাবুক হয়ে) তোর সাথে কি হচ্ছে তা আমি জানি কিন্তু আমার সাথে কি হচ্ছে সেটাই তো বুঝলাম না ??
আরোহিঃ ??
_________________
আরোহি আর অরনি খাবার নিয়ে রুমে ঢুকলো,, খাবার টেবিলে রাখতেই এক মহিলা বলে উঠলো,
– মাশাল্লাহ, ভাবি তোমার ছেলেদের পছন্দ আছে,
– হুম, আমার ছেলে বলে কথা
আরোহি ও অরনিঃ ( মনে মনে) মানে আমাকে দেখতে এসেছে ??
২য় মহিলা আরোহিকে টেনে ডান পাশে বসালো এবং অরনিকে বাম পাশে বসালো,, আর বললো,, “আমি হলাম পাত্রের মা, আর ও হলো পাত্রের ফুপি, আর ইনি হলেন আমার শ্বাশুড়ি মা,, অর্থাৎ ইনারা হলেন, আহান অর্ণবের মা, ফুপি এবং দাদি,,,আরোহির মা ইশারা করতেই অরনি আর আরোহি বৃদ্ধাকে সালাম করলেন,
আরোহি বৃদ্ধাকে সালাম করলাম এরপর পাত্রের মাকে সালাম করে তার দিকে মুখ তুলে তাকাতেই,

অর্নবের মাঃ (আরোহিকে নির্দেশ করে) আমাকে চিনতে পেরেছো?
আরোহিঃ না সুচক মাথা নাড়ালাম
অর্ণবেরঃ (মৃদু হেসে) না চেনারই কথা,, তুমি আমায় দেখনি কিন্তু আমি তোমায় দেখেছি,,,প্রায় এক বছর আগে, একদিন তুমি রিক্সায় করে যাচ্ছিলে, হঠাৎ তোমার রিক্সার সাথে আমার গাড়ি ধাক্কা খায়, দোষটা অবশ্য আমার ড্রাইভারেরই ছিলো কিন্তু তুমি কোনো রকম রিয়েক্ট না করেই চলে এসেছিলে,, সেদিন তোমাকে আমার দেখেই ভালো লেগেছিলো,, তারপর ডিটেকটিভ লাগিয়ে সব খোজ খবর নিই

আরোহিঃ (মনে মনে) ? তাইলে এরপর থেকে সামান্য বাতাস লাগলেও চিৎকার কইরা দুনিয়া উল্টায় ফেলবো যাতে আমারে আমার অহি ছাড়া আর কেউ পছন্দ না করে ?? হুহ,, আমার অহির কি হবে এখন ??

অরনিঃ (মনে মনে) আমার তো জীবনে অর্ণবের গাড়ি ছাড়া আর কারও সাথে ধাক্কা লাগেনি,, তাইলে??? ???
অর্ণবের মাঃ আর তুমি,,[অরনি কে] তুমি আমার গাড়ির সাথে ধাক্কা খাওনি কিন্তু আমার ছেলের গাড়ির সাথে ধাক্কা খেয়েছো? , আমি সবটাই দেখেছি আর আসলিয়াতটা তখনই বুঝে গেছি ( বলেই চোখ টিপ মারলাম)

অরনিঃ ইশশশ কি লজ্জা ?? ( ইনি চোখ টিপ মারলেন ?)
অর্ণবের মা এরপর সব কথা বার্তা বলে ওদের দুইজনকে হার পরিয়ে দিলেন আর বললেন
অর্ণবের মাঃ অরনি তো এখনও ছোট তাই ওর যখন ১৮ হবে তখনই ওর বিয়ে হবে আর আরোহি তো নেক্সট ইয়ারেই ১৮ হবে,,, তখন একটা ডেট ঠিক করবো,,, তবে এরা আমার বাড়িরই বউ হবে সেজন্য এদের এখনই হায়ার করে রেখে গেলাম ☺ ,,,, এরপর উনারা চলে যান।
এদিকে আরোহি তো শোকে শেষ হয়ে যাচ্ছে,,,
রুমে,
অরনিঃ ( মেকআপ তুলতে তুলতে) আপু তুই কতো লাকি!! তোর ক্রাশই তোর বর হবে ওয়াও [ (ইনার অরনি) আমারও ???]
আরোহিঃ মানে? ?
অরনিঃ মানে উনার ছেলের নাম আহান,,, তোর ক্রাশ আহান ?
আরোহিঃ ( আমি খুশি হবো না কাদবো?? হায় আল্লাহ!!! ) কিন্তু তুই তো জানিস আমি অহিকে…… তাহলে কেন তুই সব মেনে নিলি? ?
অরনিঃ (মজা করে) ? বারেএএএ,, তুমিই তো বলেছো অহির গফ আছে,,, আর আহান তো তোকে লাভ করে
আরোহিঃ আরেএএ অহির গফ নাই,, ওয়েট ওয়েট হোয়াট!! আহান আমায় লাভ করে মানে?
অরনিঃ (এই রে কি বলে ফেললাম) না মা….মানে আহানের তো কোনো গফ নাই আর তুই ওর বউ হবি তাই….
আরোহিঃ আমি এই বিয়ে কিছুতেই করতে পারবো না
অরনিঃ (? ওহ শিট আটকাতেই হবে, এখন কি করি!!) এই আমার একটা কল করার আছে থাম (বলেই বারান্দায় এসে আহান ভাইয়াকে কল করলাম)
ফোনে ✆,,,,,
আহানঃ জ্বি বলেন শালী জি
অরনিঃ আপনার হবু বউ আবার আপনার জন্য আপনাকেই রিজাক্ট করতে চাচ্ছে
আহানঃ ??? আজকে আমি রেডিওতে আসবো, ওকে আমার গান শুনতে বলো, আর বাকিটা আমি সামলে নিবো ?
অরনিঃ ওকে জিক্স,,, বাই
আহানঃ বাই
এবার অর্ণবকে কল দিলো,
অর্ণবঃ বলো জান
অরনিঃ এই জান বলবানা,, আজ আমাকেও দেখতে আসবে আমাকে আগে বলোনি কেন?
অর্ণবঃ আমি তো সারপ্রাইজ দিতে চেয়েছিলাম,, কেন? তুমি খুশি হউনি?
অরনিঃ হয়েছি কিন্তু আগে বললে আমি আরও একটু মেকআপ করতাম ?
অর্ণবঃ ?? তুমি এমনিতেই সুন্দর বাবু,, তোমাকে।মেকআপ করা লাগিবে না, আর মা তোমাকে আগেই দেখেছিলো,,
অরনিঃ উম ???
অর্ণবঃ আচ্ছা আমি পরে কথা বলছি,, আজকে শো আছে জানোই তো
অরনিঃ ওকে বাই ☺
অর্ণবঃ বাই ?
টুট টুট
_____________
অরনি রুমে আসতেই,
আরোহিঃ বোন কিছু কর প্লিজ, নয়তো আমি পালাবো
অরনিঃ ফর গড সেক এখন একটু চুপ কর প্লিজ আর আজকে রেডিওতে আহান আসবে,, সো ওর গান শোন
আরোহিঃ তুই কিভাবে জানলি? ??
অরনিঃ ই..য়ে.. মা…মানে,, আরে আম্মু ডাকছে আমি আসছি,,,,, (বলেই নিচে দৌড়)
আরোহিঃ ???
.
to be continued……… ?

স্বপ্নের_crush ? (in reality)
Part-24
writer : Borno ☺
ছদ্দনামঃ Samiya Arohi
.
রাত ১১ঃ৫৫
এখনই রেডিওতে অর্ণবের প্রোগ্রাম শুরু হবে,, অরনি আর আরোহি কম্বল মুরি দিয়ে শুয়ে আছে,, অরনি এক্সাইটেড হয়ে আছে অর্ণবের প্রোগ্রামের জন্য আর আরোহি ভাবছে তার অহির কথা,,,
.
প্রোগ্রাম শুরু হলো,
অর্ণবঃ Hello everyone, Assalamu alaikum,, Welcome to our show,, আমি আছি আপনাদের সাথে RJ রুদ্র,, না না আজকে আর এই ফেক নামে নিজের পরিচয় দিতে চাই না,, জ্বি, রুদ্র আমার আসল নাম না, তবে আমার কিছু কিছু ফ্যান আমার আসল নাম অলরেডি জানেন,, আমার আসল নাম হলো অর্ণব। ? আজ থেকে আসল নামেই পথচলা শুরু করলাম, আজ আমাদের সাথে আছেন আমাদের প্রিয় শিল্পী আহান। তবে আজ একটা এক্সাইটিং নিউজও আছে আপনাদের জন্য,, সেটা আহান নিজের মুখেই বলুক

আহান হেসে কথা বলা শুরু করলো,
আহানঃ ? Hello everyone,,, Assalamu alaikum,, সবাই আমার সালাম ও ভালোবাসা নিন,,, আসলে আমি এতোদিন মাঝে মাঝে রেডিওতে এসে গান করেছি আর কিছু ছোট ছোট প্রোগ্রামসও করেছি তবে হ্যা কিছু ওয়ার্ল্ড ট্যুরও করার সুযোগ হয়েছে আল্লাহর রহমতে,, আসলে পড়াশোনায় মনোযোগ দেওয়ার জন্য এতোদিন সেভাবে সবার সামনে আসিনি,, তবে আপনাদের ভালোবাসায় একটা সারপ্রাইজ দিতে চাই,, শিঘ্রই আমি নিজের একটা এলবাম বের করবো,, আর সেই এলবামের প্রথম গান সামনের মাসেই বের হচ্ছে,, সেখানেই আমাকে দেখতে পাবেন সবাই,, আর নিউ গানটা আমার একজন প্রিয় মানুষকে কল্পনা করে লিখা, আশা করি আপনাদের ভালো লাগবে,, উমম.. আজ এটুকুই সারপ্রাইজ দিলাম ? বাকিটা ধীরে ধীরে পেয়ে যাবেন

এদিকে আরোহি আহানের কথা শুনে বোঝার চেষ্টা করছে ছেলেটা কে,, কারণ আহানের কথা বলার ধরন তার খুব পরিচিত কারও কথার মতো মনে হচ্ছে [ আমরা তো জানি সে কে ??]

অর্ণবঃ ওহ ইতি মধ্যে অনেক গুলো ম্যাসেজ এসেছে,, মিরপুরের নাতাশা লিখেছে, ” ওহ ফাইনালি আহানকে দেখতে পাবো আমরা ? আই জাস্ট কান্ট ওয়েট এনিমোর টু সি ইউ আহান ?? ” (ম্যাসেজটা দেখে অর্ণব একটা হাসি দিলো) এরপর আর একটা ম্যাসেজ দিয়েছেন রাজশাহীর উপশহর থেকে মিম,, লিখেছেন, ” ওহ অর্ণব আমি যে তোমার কতো বড় ফ্যান বলে বোঝাতে পারবো না,, ফাইনালি তোমার রিয়েল নাম জানতে পারলাম ? লাভ ইউ আ লট অর্ণব” [ অর্ণব ম্যাসেজটা পড়লো কিন্তু তার মাথায় শুধু একটা কথাই ঘুরছে,, কাল অরনি যে ওর কি হাল করবে ??] অর্ণব বিষয়টা নরমাল করার জন্য বললো,, থ্যাংক ইউ সো মাচ আমার ফ্যানদের, তাদের ভালোবাসাই আমাকে ইন্সপায়ার করে ☺

এরপর আরও অনেক আড্ডা হলো আহান অনেক গুলো গান শোনালো,, এবার
অর্ণবঃ এখন তো বিদায় নেবার সময় হয়ে গেছে,, আমরা আহানের একটা গান শুনতে শুনতে বিদায় নিবো, তাহলে আহান শেষ কোন গান শোনাচ্ছিস?

আহানঃ গানটা আমার খুব ফেভারিট। গানের নাম ‘অভিযোগ’ ,,, গানটা আসলে আমি একজনকে ডেডিকেট করতে চাই,, আমি জানি সে শুনছে,,☺

[অরনিঃ আপি আম সিওর গানটা তোর জন্য,
আরোহিঃ তুই চুপ করবি ?
অরনিঃ ওকে (?)]
আহান গান শুরু করলো,, প্রথমে পিয়ানোর সফট মিউজিক ?? বেজে উঠলো,, তারপর আহান শুরু করলো,,
আ…হা..আ,,আ,,আ,……..?
আমার সকল অভিযোগে তুমি
তোমার মিষ্টি হাসিটা কি আমি ☺
আমার না বলা কথার ভাজে
তোমার গানের কত সুর ভাসে
তোমায় নিয়ে আমার লেখা গানে
অযথা কত স্বপ্ন বোনা আছে
আমার হাতের আঙুলের ভাজে
তোমাকে নিয়ে কত কাব্য রটে…হে
ভুলিনিতো আমি তোমার মুখে হাসি
আমার গাওয়া গানে তোমাকে ভালোবাসি
আসো আবারো কাছে হাতটা ধরে পাশে
তোমায় নিয়ে যাবো আমার পৃথিবীতে…
এই পৃথিবীতে
আ…আ..হা..আ.. (আহান চোখ বন্ধ করে কোরাস করছে)
তোমার পথে পা মিলিয়ে চলা
তোমার হাতটি ধরে বসে থাকা
আমার আকাশে তোমার নামটি লেখা
সাদার আকাশে কালো আবছা বোনা
তোমায় নিয়ে আমার লেখা গানে
অযথা কত স্বপ্ন বোনা আছে
আমার হাতের আঙুলের ভাজে
তোমাকে নিয়ে কত কাব্য রটে
ভুলিনিতো আমি তোমার মুখে হাসি
আমার গাওয়া গানে তোমাকে ভালোবাসি
আসো আবারো কাছে হাতটা ধরে পাশে
তোমায় নিয়ে যাব আমার পৃথিবীতে…
এই পৃথিবীতে
(আহান পুরো গানটাই চোখ বন্ধ করে মন দিয়ে গাইলো যেন ও গানের মধ্যে নিজের ফিলিংসই বললো,,)
[ গানটা আপনারা আরও একবার শুনে নিতে পারেন,, যেন আরোহির সাথে আপনারাও মোমেন্টটা ফিল করতে পারেন ?❤]

আরোহি এতোক্ষন আহানের গান শুনে হারিয়ে গেছিলো,, আরোহি বুঝতে পারে না যে ও আহানের গানে এমন কি খুজে পায়? আরও অনেকেই আহানের ফ্যান কিন্তু তারা এভাবে গান শুনে হারিয়ে যায় না, তারা থাকে আহানের কিউটনেসের চিন্তায়। কিন্তু আরোহি যেন নিজের মধ্যে থাকে না, আরোহির ধ্যান ভাংলো আহানের ম্যাসেজের টোনে তাকিয়ে দেখে ম্যাসেজ এসেছে,
” ১০ মিনিট পর নিচে আসবে প্লিজ, তোমায় খুব মিস করছি”

আরোহি ম্যাসেজটা দেখে চোখের পানি আটকাতে পারলো না,, দৌড়ে বারান্দায় চলে গেলো,,৷ আর ভাবছে, ” আচ্ছা আমি কাকে ভালোবাসি? আমার তো বিয়েও আহানের সাথে ঠিক হয়ে যাচ্ছে কিন্তু অহির প্রতি ফিলিংস গুলো তাহলে কি? আর আহানকে ভোলার কতো ট্রাই করলাম তাহলে কেন আজ আবার ওর গান শুনে পাগল হয়ে যাচ্ছি??? কেন কেন??”

হঠাৎ রাস্তার মোড়ে একটা গাড়িকে থামতে দেখলো,, আবার ম্যাসেজ এলো,
” নিচে এসো”

এখন রাত ১ঃ১০ বাজে। আরোহি বুঝতে পারছে না ও কি করবে,, ওর হাত পা আহানের গান শোনার পর থেকে ঠান্ডা হয়ে গেছে, হার্ট বিট টাও ফাস্ট হয়ে গেছে,,, আরোহি কোনো মতে নিচে গেলো,, নিচের বাসার গেট খুলে রাস্তায় নেমে সামনে তাকিয়েই আরোহি অবাক ?????

[ কি দেখলো আরোহি??? ???]

সামনে তাকিয়ে দেখে,, ” হোয়াইট শার্ট পড়া, বুকের উপরের ২টা বোতাম খোলা, ফরসা, well fitness, ট্রাওজার পড়া, পকেটে হাত দিয়ে দাড়িয়ে আছে একজন ?? নিয়ন লাইটের হালকা আলোয় দেখা যাচ্ছে মিস্টি একটা হাসি ☺ লেগে আছে মুখে”

দেখে আরোহির মনে পড়ে যায় ও প্রায়ই সেম ড্রিম দেখতো, একদম হুবহু তার ড্রিমের মতো, আরোহির হার্ট বিট বেড়ে গেছে,, মানুষটা আর একটু সামনে এগিয়ে আসতেই আরোহি দেখে সে আর কেউ নয়,, তার অহি,, আরোহি দৌড়ে অহির বুকে গিয়ে পড়ে, জড়িয়ে ধরে অহিকে যেন তাকে ছেড়ে দিলেই পালিয়ে যাবে,,
আহান বুঝতে পারছে না কি হলো,, আরোহি আহানকে ধরে কান্না করছে,, আহান আরোহিকে স্বাভাবিক হতে সময় দেয়,,আহান আরোহির মাথায় একটা হাত দিয়ে আলতো করে চেপে ধরে, আরোহি আহানের হার্ট বিট শুনতে পাচ্ছে,, অন্যরকম ভালোলাগা কাজ করছে,, একটু পর আহান আরোহিকে ছেড়ে ওর মুখ উপরে তুলে চোখের পানি মুছিয়ে দিয়ে বলে,
আহানঃ কি হয়েছে? এই পাগলি তুমি কাদছো কেন?
আরোহি চুপ করে চোখের পানি ফেলছে
আহানঃ বলো আমাকে,, আমি সব ঠিক করে দিবো প্রমিস
আরোহিঃ ( ফুপিয়ে ফুপিয়ে বলতে লাগলো) আ..আজ..কে আ..আহানের মা… আ..আমাকে উনার ছে..ছেলের জন্য দেখে গেছেন ??? জা..জানো আজ আমি আবার আহানের গান শুনে হারিয়ে গেছিলাম, আমি নিজকে
ক…কন্ট্রোল করার চে..চেষ্টা করি কিন্তু পারিনি,, কি…কিন্তু এখন আমি সিওর তুমিই আমার আসল ভালোবাসা, জা..জানো আমি স্বপ্নে একদম যেমন দেখতাম আমার হি..হিরোকে আজকে তুমি ঠিক সেভাবেই এন্ট্রি নিয়েছো, আমি আজকে সিউর তুমিই আমার
# স্বপ্নের_crush ,, আমার আসল ভালোবাসা [ কান্নার কারণে কথাগুলো আটকে যাচ্ছিলো কিন্তু শেষের কথা গুলো বলতে গিয়ে আরোহি লজ্জায় লাল হয়ে গেছে,, কিন্তু কখনও কখনও লজ্জাকে জয় করে কিছু কথা বোধ হয় বলে ফেলতে হয় ]

আহান ওর কথা শুনে মুচকি মুচকি হেসে ওর কানের কাছে মুখ নিয়ে গিয়ে বললো,
আহানঃ আর যদি বলি তুমি সব সময় তোমার মনে সব টুকু দিয়ে শুধু একজনকেই ভালোবেসেছো??☺
আরোহিঃ (অবাক হয়ে) মা..মানে?? ?
আহানঃ (আরোহি চারপাশে ঘুরে একটু দুষ্টুমি করে) মানেএএএ,,,, (হুট করে হ্যান্ডশেক করার স্টাইলে হাত বাড়িয়ে দিয়ে) Hi,, myself Ahan Mahmud Aohi,,
আরোহিঃ মা..মানে?? ??
আহানঃ (এবার একটু ভাবুক হয়ে) umm wait অন্যভাবে বলি (বলেই এক হাটুর উপর ভর দিয়ে প্রোপোজ করার স্টাইলে বসে এক হাত বাড়িয়ে দিয়ে বললো,) So,, Miss. Arohi,, myself Ahan Mahmud Aohi,, and I really love you so so sooo much, I know you also love me,, umm,, so, will you marry me?? ?
আরোহিঃ ???
[এই রাত ১ টার সময় বেচারি এভাবে এতোগুলো শক একসাথে খেলো, আপনারাই বলুন আরোহির কি করা উচিত ?]
.
to be continued…….. ❤
[এই পর্বে আশা করি অনেকের অনেক প্রশ্নের এন্সার দিতে পেরেছি ☺]