Black Rose Part -12[Extra] (Season-02)

0
2824

#Black_Rose
#Season_02
#The_Dark_Prince_of_Vampire_kingdom♚
#Lamiya_Rahaman_Meghla
#Pary_12[Extra]

–ও আল্লাহ এ কে? আমি কই?আমার মাথা ঘুরাচ্ছে!
–এই তোর ড্রামা বন্ধ কর৷
–কেমনে কি আদ্রিজা।
–সব বলবো তোকে তার আগে চল কোন ভালো রেস্টুরেন্টে এ বসি৷
–ওকে বাট দোস্ত সবাই তোর দিকে হা করে তাকিয়ে আছে৷
তোরে আজ উরায় নিয়ে যাবো৷
–রুহি।
–আচ্ছা চল৷
আমি আর রুহি একটা রেস্টুরেন্টে এ গেলাম৷
–দোস্ত আমি ছেলে হলে আজ তোরে বিয়া করতাম৷
–রুহি?
–সত্যি ভাইয়া তোকে দেখে sharuk স্টাইলে বলে নি,
তুঝে দেখা তো এ জানা সানাম৷ । প্রার হোতা হে দিবানা সানাম ?
–এই টুহির বাচ্চা টুহি৷
–এই আমি রুহি টুহি কেন বলিস৷
–আমার কথা শুন৷
–বল শোনার জন্য তো আর তর সইছে না৷
–আসলে,
(আদ্রিজা সবটা খুলে বললো)
–ঠিক কাজ হইছে ভালো করছিস৷
আমি আছি তোর সাথে।
–হুম৷
–আদ্রিজা৷
–বল৷
–আদ্রিয়ানকে অনেক ভালোবাসিস না৷
–বুঝতে শিখার সময় থেকে
–সত্যি ভাইয়া যেমন ভাগ্যবান তুইও৷
তোদের ভালোবাসা এমনি থাকুক আজীবন৷
–হুম আল্লাহ মালিক।
–আচ্ছা চল আজ শুধু খামু৷
–ওকে৷
আদ্রিজা রুহি খাবার শেষ করে উঠে আসে৷
বেশ রাত করে বাসায় আসে আদ্রিজা৷

রাত ৮ টা আমি দরজার সামনে এসে কলিং বেল বাজাতে মনি দরজা খুলে দেয়৷
–এতো রাত করে বাসায় আসলি।
–রুমে চলো মনি৷
–আচ্ছা তুই গিয়ে জামাকাপড় ছেড়ে খেতে আয়৷
–না খেয়ে এসেছি রুহির সাথে ছিলাম৷
–ও আচ্ছা যা আমি আসছি৷
আমি রুমে চলে এলাম কারোর দিকে না তাকিয়ে।
এসে জামা কাপড় পাল্টে ফ্রেস হয়ে বসলাম খাটে৷
–কষ্ট লাগে। অনেক টায়ার্ড আমি৷
–আদ্রিজা৷
–মনি এসেছো৷ ।
–হুম কি হইছে বল৷
–ভাইয়া কেমন আছে৷
–কেমন আর আছে যেমন থাকার কথা৷
–মনি
–থাক বলতে হবে না আমি বুঝেছি।
–তুমি বেস্ট মনি
আমি মনিকে জরিয়ে ধরলাম৷



রাত ২ টা৷
নিচ থেকে কলিং বেল এর আওয়াজ আসছে৷
ঘুমটা ভেঙে গেছে৷ ।
ফোনের লাইট অন করে দেখি ২ঃ০৩ মিনিট৷
–এতো রাতে সবাই ঘুম৷ কে এলো৷
আমি গিয়ে দরজা খুলে দিতে আদ্রিয়ান ভাইয়া আমার উপর পরলো৷
বাজে গন্ধ আসছে ভাইয়া থেকে৷
–আপনি মদ খেয়েছেন৷
–না।
আমি ভালো করে বুঝতে পেরেছি সব তাই ভাইয়া কে উপরে নিয়ে এলাম৷
ওনাকে শুইয়ে দিলাম৷
কি যেন বলছে তাই কানটা ওনার মুখের কাছে নিলাম৷
–সরি আদ্রিজা আমি ভুল করেছি৷ তুই ক্ষমা না করলে আমি মরে জাবো৷
আমি সুইসাইড করবো৷
প্লিজ আমি ভালোবাসি৷

আদ্রিয়ান সে অন্য রকম একটা মানুষ। এতো মেয়ে ওর পিছে ঘুরছে জীবনে আমি দেখি নাই একটা প্রেম করতে৷
জখন বুঝতাম ভালোবাসা কাকে বলে তখন থেকে বাবা মা মনি চাচু এর সাথে ভাইয়াকে অন্য রকম ভালোবাসতাম৷
আমার এক মাত্র খেলার সাথী ।
আমার জীবনের গুরুত্বপূর্ণ অংশ৷
আমি তার স্ত্রী আজ৷
কিন্তু আমাদের জীবন কখনো কখনো বেশ রঙের খেলা খেলে। ।

মাথা উঠিয়ে জুতা খুলে চাদর টেনে চলে এলাম রুমে।


–সত্যি কি ভাইয়া সেটা করবে যেটা বললো।
কিন্তু না না কি ভাবছি এসব৷
সে রাতে আর ঘুম হলো না৷
ভোর রাতের দিকে একটু ঘুমিয়ে ছিলাম৷
তার পর সকাল ১২ টায় ঘুম ভাঙে৷
এক বারে গোসল করে নিচে আসি৷
নিচে এসে আমি এতো বড়ো অবাক হয়ে গেলাম৷
এগুলা কি হচ্ছে এখানে৷
এভাবে সাজানো হইছে কেন৷
–মনি মনি৷
–হ্যা আরে আমার মামোনি উঠে গেছে৷
–কি হচ্ছে এখানে মনি৷
–সারপ্রাইজ।
পেছন থেকে শব্দ আসছে৷
পেছনে তাকাতে আমি অবাকের চরম সীমায় পৌঁছে গেলাম।