Black Rose Part_08

0
1615

#Black_Rose
#The_Dark_Prince_of_vampire_khingdom♚
#Megh_La
#Part_08

(কিছু গুরুত্বপূর্ণ কথা গল্পে নিজের মনের মতো ভাষার ব্যাবহার না পেলে। প্রেমের দৃশ্য ফুটে ওঠে এমন মনে হলে৷ গল্পটা ইগনোর করবেন। ধন্যবাদ)
(আচ্ছা আমি কাল কোথাও এটা বলছি তোবা আবার মা হতে চলেছে৷ কাল কেন সবাই এটা ভাবছেন আল্লাহই জানি তবে একটা কথা বলবো গল্প পড়ে বুঝতে হয়। প্রাই সবাই একি কথা বলেছেন কাল।)
–মেঘ এই টুকু খেয়ে নেও প্লিজ আমি অফিস যাবো।
–ধুর এই টুকু বলতে বলতে দুনিয়া খাইয়ে দিছো তুমি।
–কি হচ্ছে এখানে (তোবা)
–দেখ না আপু আর কতো খাবো।
–মিথ্যা তোবা মাত্র ৩ বার খাইছে আমার অফিস আছে আহম্মেদ ওয়েট করছে জলদি শেষ করো৷
–তোবা প্লিজ।
–আচ্ছা ভাইয়া আমার হাতে দিন আপনি জান৷
–শিওর৷
–হ্যা৷
আমান তোবাকে খাবার দিয়ে চলে গেল।
–কিরে বাবু এতে জিদ করিস কেন।
–আপু ভালো লাগছে না কিছু৷
–একটু খেয়ে নে তার পর আমরা গল্প করবো৷ আমি আজ সাত রাজার সেই গল্প টা বলবো এটা খেলে৷
–সত্যি।
–হুম নে।
মেঘ তোবার কাছে আরো কিছুটা খেয়ে নেয়৷
–তোবা তোর পেট বড়ো হইছে৷
–হ্যা কয় দিন পর তোরও হবে৷
–হাম দেরি আছে হু৷
–হুম অনেক দেরি দাঁড়া ।
তোবা হাত ধুয়ে এলো।
–চল যাই৷
মেঘ আর তোবা মেঘের ঘরে গেল।
–আচ্ছা বল এবার৷
–তুই আগে শুয়ে পর৷
তোবার কথায় মেঘ শুয়ে পড়লো৷
–গুড।
–কি হচ্ছে রে মামোনিরা (চাঁদনি খান)
–আরে মা আপনি আসুন৷ (তোবা)
–কি ব্যাপার মেঘ তোবা কেমন আছো৷
–এই তো মা দেখুন আপনার বড়ো বৌ খেতেই চায় না।
–কেন রে মা৷
–ভালো লাগে না মা৷
–এভাবে করলে শরীর অসুস্থ হবে।
–তুমিও শুরু হও সরা দিন রাত তোমার ছেলের কাছে বকা শুনি৷ (মুখ গেমড়া করে)
–আরে আমার সোনা মেয়েটা থাক আর রাগ করতে হবে না৷
চাঁদনি খান দুই বৌ এর সাথে গল্প করলেন বেশ কিছু সময়৷
সময় গুলে বেশ ভালেই কাটছে।



–বস।
–কি খবর।
–বস #king আমাদের vampire কিন্তু ওনার একটা মানুষ পরিবার আছে৷
–কি বলিস৷
–হ্যা বস।
লেকটি হুডি পরা লেকটিকে খুলে বলে আমান সম্পর্কে।
–ও এই ব্যাপার আমার রাতের ঘুম হারাম করে #King তার বৌ বাচ্চা মা ভাই নিয়ে শুখে থাকবে না না না এটা হতে দেওয়া যাবে না৷
–বস #king কিন্তু অনেক শক্তিশালী ওনার সাথে পারবেন তো।
–আকশের কাছে সবি তুচ্ছ শুধু এক বার ওর জানের জীগার মেঘকে পাই৷ বেস ওর সব খেলা আমি শেষ করে দিবো৷
–ওকে বস আমি আসি৷
–হুম আর হ্যা প্রতি মুহূর্তের খবর চাই৷
–ওকে বস।
লেকটি চলে গেলে আকাশ একটা ডেভিল স্মাইল দেয়।
— প্রথমে আমার শিকার। তার পর আমার পেয়ে যাওয়া সামরাজ্য তুই কেঁড়ে নিছিস আমান খান তোকে আমি এতে সহজে ছাড়বো না৷
পরিকল্পনা একটা শুখের পরিবার কে ধ্বংস করবার৷



–কি অবস্থা।
–চকলেট কই৷
–তুমি বাচ্চা হয়ে যাচ্ছো দিন দিন মেঘ।
— আমান তুমি চকলেট আনো নি৷
–হুম এনেছি এই যে।
আমি চকলেট পেয়ে একটা হাসি দিয়ে খেতে লাগলাম।
–ভাইয়া আসবো।
–হ্যা তোবা এসো৷
–কিরে মেঘ তুই এভাবে বসে আছিস কেন ঠিক হয়ে বোস নাইলে সমস্যা হবে।
আপুর কথায় পা টা ঠিক করে দিয়ে বসলাম৷
–আজ এতে জলদি এলেন৷
–এমনি৷ (আামন)
–হুম আহম্মেদ একটা কথা বলছিলো৷
–কি৷
–ভাইয়া মাত্র ১০ টা বাজে আমরা সবাই মিলে রাত ১১ টা পর্যন্ত আজ একটু আড্ডা দিবো এতে মন ভালো হবে আর অনেক দিন সবাই এক সাথে বসা হয় না৷
–মন্দ বলো নি৷
–জী ভাইয়া।
–আমি ফ্রেস হয়ে আসছি।
–ঠিক আছে সবাইকে ডাকছি
কিছু সময় পর সবাই এলো মেঘদের ঘরে যেহেতু মেঘ তুলেনা মুলক একটু বেশি অসুস্থ তাই সবাই তার রুমে আসে।
এটা একটা সুন্দর সময় পরিবারের সবার সাথে কাটানো মুহূর্ত।
এ শুখে কারের নজর না লাগে।

–বাহ এতো আনন্দ করতে দেও রনি করতে দেও আকাশের এন্ট্রি ওদের জীবন তচনচ করে দিবে।
–বস ওনার বাসায় আর যেতে পারবো না গর্ড দিগুন হইছে। এগুলা বাইরে থেকে তুলা ছবি তাও পারবো না৷
–আচ্ছা সমস্যা নাই আমার এটুকু হলেই হবে৷
–জী বস।
–#King এর কিন্তু চোখ আছে রনি ওনার স্ত্রী কিন্তু
–বস আমার মনে হয় আপনার পরিকল্পনায় ফোকাস করা উচিত #king এর স্ত্রী এর দিকে নয়৷
–এসব আমাকে শিখিও না । আমি বুঝবো৷
–ওকে বস।

এক দিকে আনন্দ সমহার অন্য দিকে সেই আনন্দ ধ্বংস করার পরিকল্পনা।
চলবে,