Secret Lover Part-06

0
702

Story – Secret Lover

Writer – Tafsirah Islam

Part – 6

তিথি বাসায় গিয়েই ওর আম্মুকে সব জানায়..
তিথির মা ও খুব খুশি হয়েছেন..

বিকেলে..

তিথি আজ অনেক বেশি খুশি.. এতো সহজে জবটা পাবে ভাবেনি..

তিথির ফোনে ম্যাসেজ আসলো..

** কি ব্যাপার ম্যাডাম আজ এতো খুশি..
আর সকাল থেকে কথায় ছিলে হুম? **

তিথি : উফফ এই পাগল ছাগলের থেকে কবে যে মুক্তি পাবো.. বজ্জাত কোথাকার.. একে পেলে তো আমি কিমা বানিয়ে ছাড়বো ??

ম্যাসেজ….

* উহু..এতো রাগ করে না সোনা..
এই পাগলি তুমি কি জান রাগলে তোমায় কতটা কিউট লাগে..ইচ্ছে করে সব ছেড়ে তোমাকে নিয়ে হারিয়ে যাই…
i love you Sweety ?
and plz take care? **

তিথি : ধুর.. এতো সুন্দর মুডটাই নষ্ট করে দিল
তিথি রেগেমেগে রুমে চলে গেলো..

সকালে..

তিথি নাস্তা করে অফিসের জন্য রেডি হবে এমন সময় আবার ম্যাসেজ আসে

** hey good morning sweety..?**

তিথি আজ ম্যাসেজের দিকে পাত্তা না দিয়ে রেডি হয়ে নেয়..

তিথি : উফফ আজ অফিসে প্রথম দিন আর আজই লেট হয়ে গেলাম

তিথি অফিসে ঢুকতেই..

ম্যানেজার : মিস. তিথি আপনি আগে স্যার এর কেভিনে যান..স্যার অনেক আগে এসেছেন

তিথি : জি

তিথি গিয়ে দরজা নক করে
তিথি : may i come in sir?
ভিতর থেকে কোনো সাড়াশব্দ নেই
তিথি : may i come in sir?
এবারও কোনো response নেই
তিথি : আজব

তিথি আবার নক করতে যাবে এমন সময়েই একটা মেয়ে তিথিকে পেছন থেকে বললো

মেয়েটি : আপনি কি স্যার এর পিএ?
তিথি : জি
মেয়েটি : ওহ আচ্ছা, স্যার একটু বাহিরে গেছেন চলে আসবেন.. আর আপনাকে স্যার এর কেভিনে ওয়েট করতে বলেছেন
তিথি : ওহ ধন্যবাদ। আপনি?
মেয়েটি : ওহ আ’ম নেহা। আমি এখানেরই একজন এমপ্লয়ি..
তিথি : nice to meet you

তিথি বসে এমন সময়েই রুহান ফোনে কথা বলতে বলতে কেভিনে ঢুকতেই তিথি দাড়িয়ে যায়..

রুহানকে দেখে তো তিথির চোখ কপালে ?

তিথি : স্যার আপনি এখানে?

রুহান সামনে তাকিয়ে দেখে তিথি..

রুহান : আরে মিস. তিথি আপনি এখানে কেন?
তিথি : স্যার আমার কথা বাদ দিন.. আপনি এখানে কিভাবে?
রুহান : আসলে এখানের বসের সাথে আমার একটা কাজ ছিল তাই এসেছি
তিথি : ওওওও..
তখনই তিথির মাথায় দুষ্টু বুদ্ধি চাপে…

তিথি : স্যার আপনি এখানে আগে কখনো এসেছেন?
রুহান : নাহ..কেন বলুনতো?
তিথি : নাহ স্যার এমনিই..
আচ্ছা স্যার আপনি বসকে চেনেন? না মানে আগে দেখেছেন কখনো?
রুহান : না..কিন্তু আপনি কখন থেকে এতো প্রশ্ন করছেন কেন বলুনতো..

তিথি : স্যার আপনি এখানের বসের সাথে দেখা করতে এসেছেন আর এখানের বসকেই চেনেন না
রুহান : মানে? কি বলতে চাইছেন আপনি?
তিথি : স্যার আমিতো ভাবতাম আপনি খুব intelligent, but i’m sorry to say…
রুহান রেগেমেগে.. ?
রুহান : কি.. কি বলতে চান আপনি? হুম ?
তিথি : আরে স্যার আমি তো জাস্ট একটু…
আচ্ছা বাদ দিন..
আমি হলাম এখানের বস..
রুহান : ?? নাইস জোক.. মিস. তিথি
তিথি : নো.. আ’ম সিরিয়াস..
আমি এখানের বস..
মিস. তিথি চৌধুরী..
রুহান : ওহ..রিয়েলি.. মিস.তিথি
ওহ সরি সরি মিস. চৌধুরী নাকি মিসেস. চৌধুরী ?
তিথি : দেখুন স্যার.. আপনি আমার স্যার বলে আমি সহ্য করছি..
রুহান : তাই নাকি.. তা আমি স্যার না হলে কি করতেন শুনি..
(তিথির একটু কাছে গিয়ে)

তিথি : স্যার আপনি ওসব কথা বাদ দিন.. আপনার কি কাজ বলুন..
আর হ্যাঁ আপনার কাজ হবে তবে শর্ত আছে
রুহান : কি শর্ত?
তিথি : শর্ত একটাই তা হলো আপনি কলেজে আমাকে কখনো পানিশমেন্ট দিতে পারবেন না..
রুহান : আর যদি না মানি
তিথি : তাহলে আপনার কাজ হবেনা
রুহান : তাই
তিথি : হুম
রুহান : ওকে.. তাহলে মিস. তিথি
না না মিস. চৌধুরী পানিশমেন্ট এর জন্য রেডি হয়ে যান
( ডেভিল মার্কা হাসি দিয়ে ?)
।।
।।
চলবে…